কক্সবাজারে আবাসিক হোটেলে জামায়াত নেতার লাশ

কক্সবাজার শহরের একটি আবাসিক হোটেল থেকে জেলা জামায়াত ইসলামীর সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান জি এম রহিমুল্লাহ’র মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকাল ৩ টার দিকে হোটেল সাগরগাঁও থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয় বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসাইন।

জি এম রহিমুল্লাহ’র গ্রামের বাড়ি কক্সবাজার সদর উপজেলার ভারুয়াখালীতে। তিনি ভারুয়াখালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

হোটেলের কর্মচারীদের বরাত দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে জি এম রহিমুল্লাহ হোটেলে এসে ৩১৬ নম্বর কক্ষে অবস্থান নেন।রাতের কোন এক সময় তিনি ঘুমিয়ে পড়েন। মঙ্গলবার সকাল ১০ টার দিকেও জি এম রহিমুল্লাহ ফোনে জনৈক এক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেন। এরপর তিনি আবারও ঘুমিয়ে পড়েন। কিন্তু দুপুর ২ টা পর্যন্তও তিনি ঘুম থেকে না জাগায় হোটেলের কর্মচারীদের সন্দেহ জাগে। এক পর্যায়ে তারা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ হোটেল কক্ষের দরজা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে। এসময় তাকে খাটের উপর স্বাভাবিকভাবে ঘুমন্ত অবস্থার মত দেখা গেছে।

পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

You Might Also Like