আ. নেতা অধ্যাপক মুনীরের মৃত্যুতে বোস্টনে শোকের ছায়া

বোস্টনের প্রিয়মুখ ও আওয়ামীলীগ নেতা অধ্যাপক মুনীর হোসেইনের মৃত্যুতে শোকাহত হয়ে পড়েছে বোস্টনের দলীয় নেতাকর্মিরা। দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকার পরগত৪ অগাস্ট সোমবারবাংলাদেশেনিজ বাড়ি গাজিপুরে তিনি ইন্তেকাল করেন।মৃত্যকালে তিনি এক মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। মৃত্যর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। খবর বার্তা সংস্থা বাংলা প্রেস’র।
প্রয়াত অধ্যাপক মুনীরনিউ ইংল্যান্ড আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক ও সাধারন সম্পাদক হিসেবে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন। জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা কালীন সময়ে তিনি ছিলেন একজন বলিষ্ঠ  ছাত্রলীগ নেতা। এছাড়াও তিনিআওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন। তিনি জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে প্রথম শ্রেনীতে এম এ  পাশ করেন। এরপর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি বিভাগে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে যোগদান করেন। তিনি স্কলারশিপ নিয়ে বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতি বিষয়ে পড়াশোনা সম্পন্ন করেন। ১৯৮৭ সালে তৎকালীন বিরোধী নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্র সফরকালীন সময়ে অধ্যাপক মুনীর হোসেইনের আমন্ত্রনে তিনি বোস্টন আসেন এবং দলীয় কর্মসুচিতে অংশ নেন। ঐ সময়ে তাঁর নেতৃত্বে নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা লাভ করে।

অধ্যাপক মুনীর হোসেইনের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ওসমান গণি, সিনিয়র সহ-সভাপতি এ কেএম ওয়াহিদী, সহ-সভাপতি  মিজানুর রহমান সাবু, বিশ্বজিত সাহা, ডা: ইরাদ খান দুলাল, ইফতেখার রহমান স্বপন, নাঈম চৌধুরী পিন্টু, নাসিম পারভীন, তপন সাহা, হাসান উজ-জামান সোহেল, সাধারন সম্পাদক  সুহাস বড়ুয়া, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক কামাল উদ্দিন,  শহীদুল  ইসলাম রনি ও  সাখাওয়াত লোকমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: জামাল হোসেন মিয়াজী, ইরফান হোসাইন ও নাসির উদ্দিন, আইন বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন মোর্শেদ, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক মো: সাহাবুদ্দিন, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক জামাল উদ্দিন রোকন, ত্রান ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক মুন্না বড়ুয়া, অফিস সম্পাদক এবিএম আজাদ, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মনিকা রহমান মুন্নি, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সিরাজুম মুনির, সহ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো: ফোরকান, পরিবেশ ও বন বিষয়ক সম্পাদক আলাউদ্দিন চৌধুরী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মহিউদ্দিন চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মিশা রহমান, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাশেম ওয়াহিদী, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক মোর্শেদ আলম, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক আবেদুর রহমান শরীফ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ড. শামীম খান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পেয়ারু সাত্তার, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক সাজ্জাদুর রহমান সাজু, সহ-অফিস সম্পাদক এমডি সেলিম,  অর্থ সম্পাদক মো: ওসমান, ইমিগ্র্যান্ট কল্যাণ  বিষয়ক সম্পাদক অনুপ দেব, গন-সংযোগ সম্পাদক সাইয়েদা জোহরা পারভীন, অভিবাসী সম্পাদক দেবাশিষ বড়ুয়া, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক মো: জিয়াউল হাসান, কার্যনির্বাহী সদস্য যথক্রমে- মতিউর রহমান, আবু কামাল আজাদ, ড. বিনয় পাল, ড. বামন দাস বসু, ড. সৈয়দ হাসান মামুন, ড.আশিস দেব, মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাক তালুকদার,  আবুল বি, খান শাহীন, সুবোধ বড়ুয়া, মহিউদ্দিন খান, মনোজ পাল, সেকান্দর, তামান্না করিম, আলতাফ হোসেন, তরুণ বড়ুয়া, জাহাঙ্গীর আলম, বদিউজ্জামান বিত্তি, নুরুল হক বাচ্চু, লায়লা ম্যাকক্যাথী, মাহমুদ হাসান, এমডি, নাসির আহমেদ, সফেদা বসু, নাসরিন মুরাদ, ইস্কান্দর আলম, জাহিদ মামুন, রেজ্জাকুল চৌধুরী ফরিদ, আয়েশা আক্তার জলী,  মনসুরা আক্তার বিউটি, আনোয়ার কবীর রুমী, ফিরোজ খান আনন্দ, আব্দুল্লা মাহমুদ, সাইয়েদ জাকির হোসেন, মো: আব্দুল বাসেত, অমলেন্দু দাস, দীপন বড়ুয়া এবং রবিন দাস, নিউইংল্যান্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ফারিদা আরভী, সহ-সভাপতি আবু মনসুর, শহিদুল ইসলাম রনি, সাধারন সম্পাদক নুরুল আবেদীন, সহ-সাধারন সম্পাদক শসাংঙ্ক সেমন্ত ও সাংগঠনিক সম্পাদক লুৎফর রহমান ভুঁইয়া, উপদেষ্টা মিজানুর রহমান সাবু, ড. সাবির উদ্দিন মির্জা, বিপুল কামাল, রাতুল বড়ুয়া, গোলাম মোর্তজা, বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাক তালুকদার, ফিরোজ খান, মিন্টু কামরুজ্জামান, একে ওয়াহিদী, আব্দুল বাসেত, মিশা রহমান ও শিরিন আক্তার। বোস্টন ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ আহমেদ হাসান, নিউইংল্যান্ড ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির সভাপতি মাহফুজুর রহমান, আ.নেতা সোফিদা বসু ও রাজু বড়ুয়া প্রমুখ।

You Might Also Like