অটোরিকশা চালক খুন

রাজশাহীতে এবার শরিফুল ইসলাম ওরফে মুন্না (৩৮) নামের এক ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার চালককে খুন করা হয়েছে।

মুন্না নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা এলাকার মান্নানের ছেলে। মুন্নাকে হত্যা করে তার অটোরিকশাটি নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

গত দুই মাসে রাজশাহী ও নাটোরের বিভিন্ন উপজেলায় সাতজন অটোরিকশা চালককে খুন করা হয়েছে। তারপর অটোরিকশা নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। গত ১ নভেম্বরও রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় এক কিশোর ভ্যানচালককে খুনের পর ভ্যান নিয়ে পালানোর পথে একজনকে আটক করে গ্রামবাসী।

সর্বশেষ মুন্নাকে হত্যা করা হলো নগরীর শাহমখদুম থানার সিটিহাট এলাকায়। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ঘটে এই হত্যাকাণ্ড। পরে রাতেই পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে থানায় নেয়। সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

শাহ মখদুম থানার ওসি এস এম মাসুদ পারভেজ জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে সড়কের পাশে একটি মেহেগনি বাগানে শরিফুলের লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। সুরতহালের সময় মরদেহের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

ওসি জানান, শরিফুলের অটোরিকশাটি খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাই ধারণা করা হচ্ছে, অটোরিকশার জন্যই দুর্বৃত্তরা শরিফুলকে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে নিহত শরিফুলের স্ত্রী সালমা বেগম থানায় মামলা করেছেন বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

You Might Also Like