যুক্তরাষ্ট্রে লেথাল ইনজেকশনে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে দুই ঘন্টা!

নিউইয়র্ক : যুক্তরাষ্ট্রের অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যে জোসেফ উড নামে এক আসামির মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে ১০ মিনিটের পরিবর্তে দুই ঘণ্টা সময় লেগেছে। জোড়া খুনের অপরাধে উডকে লেথাল ইজেকশনে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার আদেশ দেন আদালত। খবর বার্তা সংস্থা বাংলা প্রেস’র।
যুক্তরাষ্ট্রে সাধারনত লেথাল ইনজেকশনে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে ১০ মিনিট সময় লাগে। কিন্তু উডের আইনজীবী দাবি করেছেন, ৫৫ বছর বয়সী উডকে মৃত্যুর আগে অন্তত ৬০০ বার মৃত্যুযন্ত্রণা পেতে হয়েছে। এ অবস্থা দেখে উডের আইনজীবী জরুরি ভিত্তিতে মৃত্যুদণ্ড স্থগিত করতে একটি আবেদন করেন। কিন্তু আবেদনের পর অ্যারিজোনার গভর্নর জ্যান ব্রিওয়ার জানান, তিনি উডের সঠিকভাবে মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে পুনর্বিবেচনার আদেশ দিয়েছেন। উডের আইনজীবী অভিযোগ করেন, মৃত্যুদণ্ড কার্যকরে দীর্ঘসূত্রিতা আসামির মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়েছে। তাকে অমানবিক এবং অন্যায্য শাস্তি দেওয়া হয়েছে। তবে গভর্নর বলেছেন, প্রত্যক্ষদর্শীদের বর্ণনা এবং মেডিকেল রিপোর্টে দেখা গেছে, উডকে মৃত্যুর আগে কোনো ভোগান্তি সহ্য করতে হয়নি। খুন হওয়া দুজনের তুলনায় তাকে তেমন ভয়ানক পরিস্থিতির শিকার হতে হয়নি। অ্যারিজোনার এটর্নি জেনারেলের অফিস সূত্র জানায়, স্থানীয় সময় দুপুর একটা ৫২ মিনিটে উডের মৃত্যু কার্যকর শুরু হয়। আর তিনি এক ঘণ্টা ৫৭ মিনিট পরে বিকেল তিনটা ৪৯ মিনিটে মারা যান। আইনজীবীর জানান, এই ফাঁসি কার্যকরের বিষয়টি আসামির পরিবারকেও জানানো হয়নি। জোসেফ উড ১৯৮৯ সালে তার বান্ধবী ডেবরা ডায়েজ এবং তার বাবা এগুয়েন ডায়েজকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত হন।

You Might Also Like