সম্পূর্ণ পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণে সম্মত হয়েছে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া

সম্পূর্ণ পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণে সম্মত হয়েছে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া। শুক্রবার উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উন ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে এক যৌথ ঘোষণায় এ তথ্য জানিয়েছেন।

শুক্রবার বিকেলে সীমান্তের গ্রাম পানমুনজিয়মে বৈঠকের দ্বিতীয় পর্যায় শেষে হয়। এরপরই যৌথ সংবাদ সম্মেলন করেন মুন জায়ে ও উন।

যৌথ ঘোষণায় বলা হয়েছে, ‘দক্ষিণ ও উত্তর নিশ্চিত করছে যে তাদের সাধারণ উদ্দেশ্য হচ্ছে পারমাণবিক অস্ত্র দূর করে কোরীয় উপদ্বীপকে সম্পূর্ণ নিরস্ত্রীকরণ করা।’

দুই প্রেসিডেন্ট ১৯৫০ সাল থেকে শুরু হওয়া কোরীয় যুদ্ধ অবসানের আনুষ্ঠানিক ঘোষণাও দিয়েছেন। চলতি বছরের শেষ নাগাদ দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট উত্তর কোরিয়া সফর করবেন। ওই সময় এ সংক্রান্ত স্থায়ী চুক্তি হবে।

বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ত্রিপক্ষী অথবা চীনকে নিয়ে চারপক্ষীয় সম্মেলনের ব্যাপারেও সম্মত হয়েছেন দুই কোরীয় নেতা।

যৌথ ঘোষণায় বলা হয়েছে, ‘কোরীয় উপদ্বীপে আর কোনো যুদ্ধ হবে না এবং শান্তির নতুন যুগ শুরু হলো।’

কোরীয় উপদ্বীপে সামরিক উত্তেজনা প্রশমনে উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া একসঙ্গে কাজ করবে এবং যথাসম্ভব যুদ্ধের বিপদ এড়াতে কাজ করবে।

উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া পরস্পর পরস্পরের বিরুদ্ধে সব ধরণের যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে, যা সামরিক উত্তেজনা এবং আকাশ ও নৌপথসহ সব জায়গায় সংঘাতের সূত্র।

আন্তঃকোরীয় সংলাপের ওপর জোর দিয়ে ঘোষণায় বলা হয়েছে, ‘উত্তর ও দক্ষিণ কোরিয়া যত শিগগিরই সম্ভব শীর্ষ পর্যায় থেকে শুরু করে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সংলাপ ও আলোচনা করবে এবং সম্মেলনে সম্মত বিষয়গুলো বাস্তবায়নে যথাযথ পদক্ষেপ নেবে।’

You Might Also Like