অবৈধ সন্তানের বাবা হয়েছিলেন ট্রাম্প

বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে সন্তানের বাবা হয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর সেই গোপন তথ্য ফাঁস করতে চেয়েছিলেন ট্রাম্পের টাওয়ারেরেই প্রাক্তন দ্বাররক্ষী। ওই দ্বাররক্ষীর মুখ বন্ধ রাখতে তাকে ৩০ হাজার মার্কিন ডলার ঘুষ দিয়েছিল ট্রাম্পের বন্ধুর পত্রিকা দ্য ন্যাশনাল ইনকোয়েরার।

দ্য নিউইয়র্কার ও অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস ট্যাবলয়েড পত্রিকা ন্যাশনাল ইনকোয়েরারের এই অপকাণ্ডের সংবাদ প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়েছে, ২০১৫ সালের শেষ দিকে ন্যাশনাল ইনকোয়েরারকে ট্রাম্প টাওয়ারের প্রাক্তন দ্বাররক্ষী ডিনো সাজুদিন জানান, তিনি শুনতে পেয়েছেন ১৯৮০ সালের শেষ দিকে এক কর্মচারীর সঙ্গে বিবাহ বর্হিভূত সম্পর্ক স্থাপনের মাধ্যমে ট্রাম্প এক সন্তানের পিতা হয়েছিলেন। ‘ধর এবং হত্যা কর’ এই তত্ত্বের ওপর ভিত্তি করে ইনকোয়েরার সাজুদিনের কাছ থেকে ৩০ হাজার ডলার দিয়ে তথ্যটি কিনে নেয়। এরপরই ট্রাম্পের পক্ষে ওই প্রতিবেদনটি ধামাচাপা দেওয়া হয়।

দ্য নিউইয়র্কারের সাংবাদিক রোনান ফ্যারো বৃহস্পতিবার সিএনএনকে জানিয়েছেন, প্রতিবেদনটি ধামাচাপা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন ইনকোয়েরারের প্রকাশক ও ট্রাম্পের বন্ধু ডেভিড পিকার।

রোনান বলেন, ‘এটা হচ্ছে দেশের সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের গল্প যারা প্রতিবেদন বন্ধ ও এর বিবরণ বদলে দিতে পারেন। আমি মনে করি জনগণের এগুলো জানা উচিৎ।’

You Might Also Like