কোটা সংস্কার আন্দোলনকারিদের দাবিটা ন্যায্য : তারেক রহমান

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান দেশের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে সবসময় খোঁজ খবর নেন বলে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানিয়েছে। বিশেষ করে দলের চেয়ারপার্সন কারাগারে যাবার পূর্বমুহূর্তে তারেক রহমানকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নিযুক্ত করার পর তিনি সর্বক্ষণ দেশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। দেশে চলমান পরিস্থিতির সবক’টিই তিনি সরাসরি ওযাকেবহাল হয়ে দলীয় নেতা কর্মীদের করণীয় পরামর্শ ও নির্দেশ দিয়ে থাকেন। চলমান কোটা সংস্কার আন্দোলনের বিষয়েও খোঁজ খবর নিয়ে তিনি তাঁর প্রতিক্রিয়া এবং তাঁর উদ্ববিগ্নতা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন ‘আমার মনে হয়, এই দাবিটা ওদের ন্যায্য দাবি।’

তারেক রহমান  কোটা সংস্কার আন্দোলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপিপন্থী সাদা দলের শিক্ষকদের সমর্থন দিতে বলেছেন গত ১১ এপ্রিল মঙ্গলবার। এদিন টেলিফোনে বিষয়টি সমন্বয়ের দায়িত্ব দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা (জাসাস) সভাপতি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন আহমেদকে। তারেক রহমানের সঙ্গে কথোপকথনের বিষয়টি বাংলা সংবাদ মাধ্যমের কাছে স্বীকার করেছেন অধ্যাপক মামুন আহমেদ। তিনি বলেন, ‘মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর তারেক রহমানের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে।’

আর এরই পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদা দলের পক্ষ থেকে কোটা সংস্কারের আন্দোলনে সমর্থন জানানো হয় উল্লেখ করে অধ্যাপক মামুন আহমেদ বলেন, ‘ছাত্র-ছাত্রীদের যে দাবি, সেটা যৌক্তিক। কোটা সংস্কারের এই দাবিটা যৌক্তিক হিসেবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবারের সবাই বিবেচনা করেন।’

অধ্যাপক মামুন আহমেদ যোগ করেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি এই দাবির প্রতি সমর্থন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন। ঢাবি পরিবারের সদস্যদের প্রধান হিসেবে উপাচার্যও বিবৃতি দিয়েছেন। তার মানে হচ্ছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবারের সদস্য হিসেবে সবাই যেমন সাপোর্ট করে, ঠিক তেমনি পরিবারের একজন সদস্য হিসেবে আমিও সেটা সাপোর্ট করি।’

ঢাবির এই শিক্ষক আরও বলেন, ‘বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান যখন আমাদের ফোন করেছেন, তখন তিনি জানতে চেয়েছেন, পরিস্থিতি কী। আমিও একই কথা বলেছি যে, আমরা সাপোর্টিভ এর প্রতি। তো, শিক্ষক সমিতি যেমন অর্গানাইজডওয়েতে সাপোর্ট করেছে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাদা দল কার্যকর আছে, সাদা দলের পক্ষ থেকেও অর্গানাইজডওয়েতে আমরা বিবৃতি দিয়েছি আজ। বলেছি, আমরাও এই দাবির সঙ্গে আছি। দাবি যৌক্তিক। যৌক্তিক দাবির প্রতি আমরা সমর্থন জানাচ্ছি।’

পুরো টেলিফোন কথোপকথন এখানে তুলে ধরা হলো:

মামুন: হ্যালো

তারেক: জি, স্লামালেকুম।

তারেক: জি, মামুন সাহেব বলছেন?

মামুন: জি বলছি।

তারেক: মামুন সাহেব, আমার নাম তারেক রহমান।

মামুন: স্লামালেকুম, স্লামালেকুম।

তারেক: ভালো আছেন?

মামুন: জি আমি ভালো আছি। আপনি ভালো আছেন? আপনার শরীর কেমন?

তারেক: শরীর আছে মোটামুটি, আলহামদুলিল্লাহ।

মামুন: আলহামদুলিল্লাহ।

তারেক: আমি ফোন করলাম, ছেলেপেলেরা যে কোটা আন্দোলনের জন্য, বাতিলের জন্য বা সংস্কারের জন্য আন্দোলন করছে, এখানে মনে হয়, সাদা দলের পক্ষ থেকে, যেহেতু দাবিটা জেনুইন। এবং দেশের অধিকাংশ স্টুডেন্ট যারা মেধাবি বলে স্বীকৃত, অধিকাংশই তো এইটার সাথে আছে, তাই না?

মামুন: জি।

তারেক: এবং আমার মনে হয় সাধারণ মানুষ আছে, বিকজ এই যে কোটা পদ্ধতি তো কয়েক বছরে আওয়ামী লীগ যেভাবে, বলা যায় নষ্ট করে দিয়েছে, আমার মনে হয়, এই দাবিটা বোধহয় ওদের ন্যায্য দাবি।

মামুন: অবশ্যই।

তারেক: আমার মনে হয়, আপনারা যারা আছেন, সাদা দলের, বিশেষ করে আমার মনে হয়, আপনারা আছেন যারা, এটাকে একটু অর্গানাইজড করে সাপোর্ট দিলে হয় না?

মামুন: আমার ব্যক্তিগত ধারণা, সাপোর্টটা দেওয়া প্রয়োজন। জেনারেলওয়েতেই সেটা করা প্রয়োজন। তবে অর্গানাইজড করাটা বিভিন্ন কারণে সম্ভব হয় নাই। তবে এখন পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে, এখন অর্গানাইজড করার সময় হয়ে এসেছে। আপনি বলায় এটা আরও বেশি এক্সপাডাইজ হবে নিশ্চয়। নিশ্চয় সেটা আমরা করবো।

তারেক: তাহলে তো আপনাদের দায়িত্ব নিতে হবে।

মামুন: জি আমরা করবো।

তারেক: আপনি একটু এগিয়ে আসেন তাহলে।

মামুন: অবশ্যই, অবশ্যই।

তারেক: সবার সঙ্গে একটু কথা বলেন তাহলে। যারা যারা আছেন সবার সঙ্গে একটু কথা বলে এটা একটু অর্গানাইজড করেন তাহলে।

মামুন: জি, জি, আমি কথা বলছি।

তারেক: আমি আরও দুই-একজনের সঙ্গে কথা বলছি।

মামুন: জি, জি।

তারেক: আপনার অবস্থান থেকে একটা ভুমিকা রাখেন তাহলে। ভূমিকা রাখেন।

মামুন: জি, জি।

তারেক: এই নাম্বারটা…এই নাম্বারটা আমার সেইভ করে রাখেন। আপনি তাহলে আপডেটটা আমাকে এই নাম্বারে জানাতে পারবেন।

মামুন: ও থ্যাংক ইউ।

তারেক: আর অন্য কোনও বিষয় হলেও আমাকে জানাতে পারবেন।

মামুন: আমি তো বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য। আর জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি। আপনি হয়তো জানেন। দোয়া করবেন আমাদের জন্য।

তাকের: জি, আপনিও দোয়া করবেন।

মামুন: বিভিন্ন প্রয়োজনে আমিও যোগাযোগ করবো আপনার সঙ্গে।

তারেক: তো আই অ্যাম এক্সপেক্টিং আপডেট ফর্ম ইউ টুমোরো।

মামুন: ওকে

তারেক: কালকে আমি একটা আপডেট আশা করছি। থ্যাংক ইউ। থ্যাংক ইউ।

মামুন: জি স্লামালেকুম, স্লামালেকুম।

তারেক: স্লামালেকুম, স্লামালেকুম।

You Might Also Like