সামরিক প্রধানদের বহিষ্কার করলেন সৌদি বাদশাহ

সেনাবাহিনীর প্রধানসহ অন্যান্য সামরিক বাহিনীর সব প্রধানকে বহিষ্কার করেছেন সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ।

সোমবার মধ্যরাতে রাজকীয় ফরমান জারি করে এই বহিষ্কারাদেশ দিয়েছেন তিনি। এসব পদে নতুন মুখ বসানো হয়েছে।

সৌদি আরবের সরকারি সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সিতে (এসপিএ) এ খবর প্রকাশিত হয়েছে। তবে কী কারণে শীর্ষ সামরিক কমান্ডারদের বহিষ্কার করা হয়েছে, সে সম্পর্কে কিছু্ই বলা হয়নি।

ইয়েমেনে শিয়াপন্থি হুতিবিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সৌদি আরবের যুদ্ধের তিন বছর শেষ হচ্ছে। এমন সময় সব সামরিক প্রধানকে বহিষ্কার করলেন বাদশা।

এ ছাড়া সৌদি আরবের প্রতিরক্ষামন্ত্রী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানও দেশটিতে বিভিন্ন সংস্কারের নেপথ্যে ভূমিকা রেখেছেন। গত বছর দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহারের কারণে কয়েক ডজন সৌদি রাজপুত্র, মন্ত্রী ও বিলিয়নিয়ারদের আটক করা হয় তার নির্দেশে। রিয়াদে বিলাসবহুল রিৎজ-কার্লটন হোটেলটি কারাগারে রূপান্তর করে সেখানে তাদের রাখা হয়।

এসপিএ জানিয়েছে, যাদের বহিষ্কার করা হয়েছে, তাদের মধ্যে আছেন সেনাপ্রধান জেনারেল আবদুল রহমান বিন সালেহ আল-বুনিয়ান। তবে বহিষ্কারের পর খালি হওয়া পদে এরই মধ্যে অনেককে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একই সময়ে রাজনৈতিক পদেও বেশ পরিবর্তন আনা হয়েছে। সৌদি আরবের শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে তমাদার বিনতে ইউসুফ আল-রামাহকে। এটি দেশটির ইতিহাসে একটি বিরল ঘটনা।

দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আসির প্রদেশে নতুন ডেপুটি গভর্নর করা হয়েছে রাজপুত্র তুর্কি বিন তালালকে। বিলিয়নিয়ার রাজপুত্র আলওয়ালিদ বিন তালালের ভাই তিনি। দুর্নীতিবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল আলওয়ালিদকে। অবশ্য দুই মাস পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

You Might Also Like