জেএসএস-ইউপিডিএফ বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে দুই পাহাড়ি সশস্ত্র গ্রুপের বন্দুকযুদ্ধে পরেশ তংচঙ্গ্যা (৩৫) নামে এক ইউপিডিএফ কর্মী নিহত হয়েছেন। এ সময় আরো তিনজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

শুক্রবার সকাল ৭টায় উপজেলার কাঞ্চননগর ইউনিয়নের ছাইল্যা ছোড় গোল টিলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পার্বত্য চট্টগ্রামের বড় টিলা এলাকায় জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) ও ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট’র (ইউপিডিএফ) মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে ইউপিডিএফ কর্মী পরেশ তংচঙ্গ্যা (৩৫) ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এ সময় জেএসএস’র তিন কর্মী শান্তু চাকমা (৩০), রিপন চাকমা (৪০) আনন্দ চাকমা (৩৫) গুলিবিদ্ধ হন। আহত দু’জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ইউপিডিএফ নেতা মাস্টার ইন্দ্রজিৎ বলেন, নিহত পরেশ ইউপিডিএফের একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন।

কাঞ্চননগর ইউপি চেয়ারম্যান রশিদ উদ্দিন কাতেব জানান, পাহাড়ি সন্ত্রাসী গ্রুপগুলো বিভিন্ন সময় চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি এলাকায় অবৈধ প্রবেশ করে বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালায়। সন্ত্রাসীরা এলাকায় চাঁদাবাজি, অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়সহ প্রকাশ্যে সশন্ত্র মহড়া দিয়ে ত্রাসের সৃষ্টি করে।

এর ধারাবাহিকতায় শুক্রবার সকালে পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের দুই গ্রুপে বন্দুকযুদ্ধের খবর পেয়েছি। এ ঘটনায় দু’জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও এ ব্যাপারে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলেও জানান তিনি।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজ উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধারের জন্য ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে। এটি একটি দুর্গম এলাকা হওয়ায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বিকেল সাড়ে ৩টা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পারেনি।

You Might Also Like