ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচন: আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন আতিকুল ইসলাম

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উপনির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন ব্যবসায়ী নেতা আতিকুল ইসলাম। আজ (মঙ্গলবার) রাতে গণভবনে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে মনোনয়ন বোর্ডের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। পরে দলের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি জানান।

তিনি বলেন, নির্বাচনে প্রার্থী হতে দু’জন নারীসহ মোট ১৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। মনোনয়ন বোর্ডে সবার সিদ্ধান্তেই আতিকুল ইসলামকে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। এ সময় নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।

এর আগে ম‌নোনয়নপ্রত্যাশীদের ফরম জমা নেয়ার পর তা‌দের মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গণভব‌নে যাওয়ার আমন্ত্রণপত্র দেওয়া হ‌য়। সবার আগে প্রচারণায় নামা বিজিএমইএ’র সাবেক সভাপতি আতিকুল ইসলাম এবং ‌বিমানবন্দর সড়‌কের সৌন্দর্য বর্ধনের দা‌য়ি‌ত্বে থাকা ভিনাইল ওয়া‌র্ল্ডের আবেদ মনসুরসহ মোট ১৮ জন আওয়ামী লীগের প্রার্থী পদে মনোনয়ন ফরম জমা দেন।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়ার পর এক প্রতিক্রিয়ায় আতিকুল ইসলাম বলেন, মনোনয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান জননেত্রেী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনীত করেছেন এজন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আসুন আমরা সকলে একসঙ্গে নৌকার পক্ষে কাজ করি। যে কথা বলেছেন আমাদের পার্টির জেনারেল সেক্রেটারি, ‘নৌকাই হবে সবার মার্কা।’

তিনি বলেন, ‘আমরা প্রমাণ করতে চাই নৌকাই পারবে দেশকে এগিয়ে নিতে। নৌকার সঙ্গে থেকে ২০২১ সালের মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গড়তে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করব ইনশাল্লাহ্।‘
এর একদিন আগে একই সিটির উপ-নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন নির্বাহী কমিটির সদস্য তাবিথ আওয়াল।

২০১৫ সালে ঢাকা উত্তরের নির্বাচনে বিএনপির সমর্থন নিয়ে মেয়র প্রার্থী হয়েছিলেন। ভোট গ্রহণের একপর্যায়ে তিনি অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। নির্বাচন বর্জনের আগ পর্যন্ত তিন লাখের বেশি ভোট পেয়েছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টুর ছেলে তাবিথ। ওই নির্বাচনে মেয়র নির্বাচিত হন আওয়ামী লীগের প্রার্থী আনিসুল হক। গত ৩০ নভেম্বর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যুতে স্থানীয় সরকার বিভাগ ১ ডিসেম্বর থেকে ওই পদটি শূন্য ঘোষণা করে। এরপর গত ৯ জানুয়ারি নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে এ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় আগামী ১৮ জানুয়ারি। প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৯ জানুয়ারি। মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে ২১ ও ২২ জানুয়ারি। আর নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে ২৬ ফেব্রুয়ারি।

You Might Also Like