‘আমেরিকার টাকার লোভে সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধ শুরু করেনি পাকিস্তান’

পাকিস্তান বলেছে, দেশটি আমেরিকার টাকার লোভে সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধ শুরু করেনি এবং ইসলামাবাদের প্রতি ওয়াশিংটনের বিদ্বেষী নীতি অব্যাহত থাকলে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা চালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করবে ইসলামাবাদ।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পাকিস্তান বিরোধী সাম্প্রতিক বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত মালিহা লোধি বৃহস্পতিবার এ মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, আমেরিকা যদি সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে পাকিস্তানের অবদানকে স্বীকৃতি না দেয় তাহলে ওয়াশিংটন ইসলামাবাদের কাছ থেকে সহযোগিতা আশা করতে পারে না।

লোধি বলেন, আমেরিকার নয়া প্রশাসনের দাবির বিপরীতে পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বেশি যুদ্ধ করেছে এবং সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শিকার হয়েছে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সোমবার ২০১৮ সালে তার প্রথম টুইটার বার্তায় উগ্র সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দেয়ার জন্য পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করেন। তিনি সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে পাকিস্তানকে দেয়া আর্থিক সহায়তা বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দেন।

পাকিস্তান সরকারের পাশাপাশি দেশগুলোর বেশিরভাগ রাজনৈতিক দলের নেতারা ট্রাম্পের এই বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানান।

২০১৭ সালের আগস্ট মাসে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের কঠোর বক্তব্যের জের ধরে দু’দেশের সম্পর্কের মারাত্মক অবনতি হয়। ওই বক্তব্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রথমবার আফগানিস্তানে তৎপর সন্ত্রাসীদের আশ্রয় দেয়ার জন্য পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করেছিলেন।

You Might Also Like