মুসলমান হওয়ার কারণে মার্কিন ছাত্রীর ওপর সহপাঠীদের নির্যাতন; বিচার দাবি

আমেরিকার ফ্লোরিডার একটি হাই স্কুলে এক মুসলিম ছাত্রীকে বেধড়ক মারধর করেছে তার সহপাঠীরা। ওই মুসলিম ছাত্রীর বাবা শাকিল মুনশি বলেছেন, মুসলমান হওয়ার কারণেই তার মেয়েকে নির্মমভাবে আঘাত করা হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, ফ্লোরিডার একটি মাধ্যমিক স্কুলের বাইরে পার্কের ভেতর এক মুসলিম কিশোরীকে বেদম মারপিট করছে তারই তিন সহপাঠী।

৫৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিও ধারণ করেছে তাদের আরেক সহপাঠী। ভিডিওতে ফিল্মি স্টাইলে দুইজনকে কিল-ঘুষি ও আরেকজনকে লাথি মারতে দেখা যায়। হামলায় আহত শিক্ষার্থীর বাবা বলেছেন, তার মেয়ে ওদেরকে পাল্টা কোনো আঘাত করে নি। এরপরও দীর্ঘ সময় ধরে তার মেয়ের ওপর নির্যাতন চালানো হয়েছে।
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতা গ্রহণের পর আমেরিকায় আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে গেছে মুসলিম-বিদ্বেষী হামলা। বিভিন্ন সময় ট্রাম্পের ইসলামবিরোধী বক্তব্যের কারণে আমেরিকার শিক্ষার্থীদের মধ্যে কট্টর ও মুসলিমবিরোধী মনোভাব তৈরি হচ্ছে বলে মনে করেন মানবাধিকারকর্মীরা।

দ্য কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশন্স বা সিএআইআর হামলাকারীদের বিচার দাবি করেছে। সিএআইআর’র আইনজীবী ওমর সালেহ বলেছেন, মেয়ের মায়ের কাছ থেকে তারা তথ্য সংগ্রহ করেছেন। তার মা জানিয়েছেন মেয়েটিকে এখন চিকিৎসা দিতে হচ্ছে।

You Might Also Like