‘অপেক্ষা আমাকে মেরে ফেলছে’

বলিউডের বহুল প্রতীক্ষিত আলোচিত সিনেমা ‘পদ্মাবতী’। এতে শহিদ কাপুর অভিনয় করেছেন পদ্মাবতীর স্বামী রাজা রতন সিংয়ের ভূমিকায়। সঞ্জয় লীলা বানসালি পরিচালিত এ সিনেমাটি শুরু থেকেই নানা কারণে আলোচনায় ছিল। সর্বশেষ এর মুক্তি নিয়ে শুরু হয়েছে অনিশ্চয়তা। তবে শহিদ কাপুর আশা ব্যক্ত করে জানিয়েছেন, চলতি বছরের শেষের দিকে সিনেমাটির মুক্তির দিন ঠিক হবে।

‘পদ্মাবতী’ সিনেমাটি এখনো ভারতীয় সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পায়নি। রাজপুত করনি সেনা ও বেশ কয়েকজন রাজনৈতিক নেতার দাবি, সিনেমায় পদ্মাবতীর ভাবমূর্তি নষ্ট করেছেন সঞ্জয়। কারণ সিনেমায় পদ্মাবতীর সঙ্গে আলাউদ্দিন খিলজির প্রেমের সম্পর্ক দেখানো হয়েছে। কিন্তু বাস্তবে পদ্মাবতী-খিলজির মধ্যে কোনো প্রেমের সম্পর্ক ছিল না। এজন্য পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানসালি ও দীপিকা পাড়ুকোনকে মৃত্যুর হুমকিও দিয়েছিল তারা।

সিনেমাটিতে রানি পদ্মাবতী চরিত্রে অভিনয় করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন। আলাউদ্দিন খিলজির ভূমিকায় দেখা যাবে রণবীর সিংকে। গত ১ ডিসেম্বর সিনেমাটি মুক্তির কথা ছিল।

সম্প্রতি মুম্বাইতে অনুষ্ঠিত হয় জি সিনে অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান। এ সময় সিনেমাটির মুক্তি প্রসঙ্গে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে শহিদ কাপুরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘চলতি মাসের শেষের দিকে সিনেমাটির মুক্তির তারিখ জানাব। আমরা চাই, যতটা তাড়াতাড়ি সম্ভব সিনেমাটি মুক্তি দিতে।’

‘পদ্মাবতী’ সিনেমা নিয়ে অনেক বিতর্ক হয়েছে। এ বিষয়টি আপনার অভিনয় ক্যারিয়ারে কথটা প্রভাব ফেলেছে? এমন প্রশ্নের জবাবে শহিদ বলেন, ‘পদ্মাবতী সিনেমাটি নিয়ে চারপাশে অনেক বিতর্ক চলছে। কিন্তু এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ চলচ্চিত্র। এ চলচ্চিত্রের অংশ হওয়ার জন্যই এ বছরটি আমার অভিনয় ক্যারিয়ারের রোমাঞ্চকর বছরগুলোর মধ্যে অন্যতম। আমি বিশ্বাস করি, এটি একটি স্মরণীয় ও ঐতিহাসিক সিনেমা হতে যাচ্ছে। কিন্তু অপেক্ষা আমাকে মেরে ফেলছে।’

You Might Also Like