আগামী বছর বাড়বে ভূমিকম্পের সংখ্যা ও তীব্রতা

চলতি বছরের তুলনায় আগামী বছর বিশ্বে ভূমিকম্পের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিজ্ঞানীরা। তাদের বিশ্বাস পৃথিবীর ঘূর্ণনের গতির তারতম্য ভূকম্পনের তীব্রতা বাড়াতে পারে। বিশেষ করে পৃথিবীর গ্রীষ্মমন্ডলীয় অঞ্চলের জনসংখ্যাবহুল দেশগুলোতে কম্পনের এই মাত্রা বেশি হতে পারে।

এতে বলা হয়েছে, ঘূর্ণনের এই তারতম্যের হার ক্ষুদ্র- যার ফলে দিনের দৈর্ঘ্য এক মিলিসেকেন্ড করে বাড়ছে। ভূগর্ভস্থ শক্তির ব্যাপক ক্ষয়ের সঙ্গে এর সম্পৃক্ততা থাকতে পারে।

গত মাসে জিওলজিক্যাল সোসাইটি অব আমেরিকার বার্ষিক বৈঠকে ইউনিভার্সিটি অব কলোরাডোর রজার বিলহ্যাম এবং ইউনিভার্সিটি অব মন্টানার রেবেকা বেনডিক এক গবেষণাপত্রে পৃথিবীর ঘূর্ণনের সঙ্গে ভূকম্পনের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি তুলে ধরেন।

গত সপ্তাহে মার্কিন সংবাদমাধ্যম অবজারভারকে বিলহ্যাম বলেছেন, ‘পৃথিবীর ঘূর্ণন ও ভূকম্পনের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টি বেশ জোরালো। আর এটা ইঙ্গিত দিচ্ছে যে, আগামী বছর ভূকম্পনের সংখ্যা বাড়তে পারে।’

বিলহ্যাম ও বেনডিক তাদের গবেষণাপত্রে দেখিয়েছেন, গত দেড় শতাব্দি ধরে প্রতি পাঁচ বছর অন্তর পৃথিবীর ঘূর্ণনের গতি কিছুটা ধীর হয়। আর দুর্ভাগ্যজনভাবে এই সময়গুলোতে বড় মাত্রার ভূকম্পনের সংখ্যা বেড়ে যায়।

বিলহ্যাম বলেন, ‘ব্যাপারটা সোজাসাপ্টা। পৃথিবী আমাদেরকে পাঁচ বছর সামনে রেখে ভবিষ্যত ভূমিকম্পের বিষয়টি জানাচ্ছে।’

You Might Also Like