১ হাজার শিশুকে খাওয়াবেন ঐশ্বরিয়া

বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। অভিনয়ের পাশাপাশি নানা জনহিতৈষী কাজে অংশ নেন তিনি। এরই ধারবাহিকতায় এবার এক হাজার সুবিধাবঞ্চিত শিশুকে মিড ডে মিল (বিদ্যালয়ে দুপুরের খাবার) খাওয়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই অভিনেত্রী। ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণ কনসাসনেস (আইএসকেসিওএন)-এর অন্নামৃত মিড ডে মিল স্কিমের আওতায় এ কাজ করবেন তিনি।

গত ১ নভেম্বর ছিল ঐশ্বরিয়ার ৪৪তম জন্মদিন। এদিন সিদ্ধান্তটি নেন এ অভিনেত্রী। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে তথ্যটি জানিয়েছেন আইএসকেসিওএন-এর প্রধান রাধানাথ স্বামী মহারাজ।

তিনি আরো জানান, অন্নামৃত ফাউন্ডেশনের মিড ডে মিল স্কিমটি চালু হয় ২০০৪ সালে। একটি ছোট কামড়ায় ৯০০ জনের খাবার আয়োজনের মধ্যে শুরু হওয়া সেই প্রকল্প এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১.২ মিলিয়ন। ভারতের সাতটি রাজ্যের ২০টি হাইটেক আইএসও সনদপ্রাপ্ত রান্নাঘরে খাবার তৈরি হয়।

এ প্রকল্প শুরুর বিষয়টি স্মৃতিচারণ করে রাধানাথ স্বামী মহারাজ জানান, তার গুরু ভক্তিবেদান্তে শ্রীলা প্রভুপদ একদিন দেখেন, আস্তাকুঁড়ে ফেলে দেয়া একটি খাবারের প্যাকেট নিয়ে একটি কুকুর ও একটি শিশু কাড়াকাড়ি করছে। বিষয়টি তাকে খুব নাড়া দেয়। তখন তিনি তার ভক্তদের নির্দেশ দেন, আইএসকেসিওএন মন্দিরের ১০ মাইলের মধ্যে যেন কেউ ক্ষুধার্থ না থাকে।

এরপর গত ১৩ বছর ধরে গরীব মানুষের মধ্যে মন্দিরের পক্ষ থেকে খিচুড়ি বিতরণ করা হচ্ছে এবং অন্নামৃত ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে লাখ মানুষকে খাবার খাওয়ানো হচ্ছে। অন্নামৃত স্কিমের মাধ্যমে খেয়াল রাখা হয়, কোনো শিশু যেন খাবারের অভাবে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত না হয়। যে সকল স্কুলগুলোতে অন্নামৃত প্রদান করা হয় কিছুদিনের মধ্যে সেখানে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি বাড়তে থাকে।

কয়েকদিন আগে নাভি মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল করপোরেশন ও আইএসসিওএন মিলে প্রায় ৫ হাজার শিক্ষার্থীর মিড ডে মিল সরবরাহ করে। সাধারণত প্রথম শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মধ্যে মিড ডে মিল সরবরাহ করা হয়। তবে সুবিধাবঞ্চিত শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে তার উপরের শ্রেণিতেও এ খাবার সরবরাহ করা হয় বলে জানা গেছে।

You Might Also Like