কাতালোনিয়ার আট মন্ত্রীর রিমান্ড, বিক্ষোভ বার্সেলোনায়

কাতালোনিয়ার বরখাস্তকৃত আট মন্ত্রীকে জামিন না দিয়ে রিমান্ডের আদেশ দিয়েছে মাদ্রিদের আদালত। এ ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বার্সেলোনায় বিক্ষোভ করেছেন হাজার হাজার স্বাধীনতাপন্থি ।

একই অভিযোগে বেলজিয়ামে থাকা কাতালান প্রেসিডেন্ট কার্লোস পুজদেমন ও তার চার মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ইউরোপীয় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেছেন স্পেনের সরকারি আইনজীবীরা।

বিদ্রোহ, রাষ্ট্রদ্রোহ ও রাষ্ট্রীয় অর্থ অপচয়ের অভিযোগে কাতালোনিয়ার ১৪ মন্ত্রী মাদ্রিদের হাইকোর্টে তলব করা হয়েছিল। তবে বৃহস্পতিবার আদালতে হাজির হয়েছিলেন নয়জন । তারা স্পেন থেকে পালিয়ে যেতে কিংবা আলামত নষ্ট করতে পারেন এই সন্দেহে বিচারক কারমেন লামেলা তাদেরকে রিমান্ডে নেওয়ার নির্দেশ দেন। তবে রিমান্ড থেকে বেঁচেছেন বরখাস্ত হওয়া বাণিজ্যমন্ত্রী সান্তি ভিয়া। কাতালান পার্লামেন্টে স্বাধীনতার প্রশ্নে ভোটাভুটির আগেই তিনি পদত্যাগ করেছিলেন বলে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়।

যাদেরকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে রয়েছেন বরখাস্ত হওয়া ভাইস প্রেসিডেন্ট অরিয়ল জাঙ্কুয়েরেস, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী জোয়াকিম ফর্ন, পররাষ্ট্র মন্ত্রী রাউল রোমেভা, বিচার মন্ত্রী কার্লেস মুন্ডো, শ্রম মন্ত্রী ডোলোরস বাসা, প্রেসিডেন্সি কাউন্সিলর জর্দি তুরুল, টেকসই উন্নয়ন মন্ত্রী জোসেফ রুল এবং সংস্কৃতি মন্ত্রী মেরিটক্সেল বোরাস।

এদিকে আট মন্ত্রীকে রিমান্ডে নেওয়ার প্রতিবাদে বার্সেলোনায় তীব্র বিক্ষোভ হয়েছে।আঞ্চলিক পার্লামেন্টের কাছে জড়ো হওয়া স্বাধীনতাপন্থি কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী কাতালান পতাকা ও ‘রাজবন্দিদের মুক্তি দাও’ স্লোগানে মন্ত্রীদের মুক্তি দাবি করেছেন। কাতালোনিয়ার অন্যান্য শহরেও একই ধরণের বিক্ষোভ হয়েছে। স্পেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এই রাজ্যটির বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও নাগরিক গোষ্ঠী স্পেনের বিচার ব্যবস্থার অবস্থানের প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

স্পেন থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীনতার প্রশ্নে ১ অক্টোবরের গণভোটের রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণা করা হয়। এরপর স্বাধীনতার ঘোষণাকে অবৈধ ঘোষণা করেন স্পেনের সাংবিধানিক আদালত। গত সপ্তাহে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা এড়াতে নিজের চার মন্ত্রীকে নিয়ে বেলজিয়ামে পালিয়ে যান পুজদেমন।

You Might Also Like