বারাক ওবামার প্রেমপত্র

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার লেখা প্রেমপত্র এই প্রথম প্রকাশ্যে এসেছে। ওবামার লেখা নয়টি প্রেমপত্র প্রকাশ করেছে আটলান্টার ইমোরি বিশ্ববিদ্যালয়।

১৯৮২ থেকে ১৯৮৪ সালের মধ্যে বারাক ওবামা কলেজ জীবনে তার প্রথম প্রেমিকা আলেকজান্দ্রা ম্যাকনিয়ারকে চিঠিগুলো লেখেন। এর পাঁচ বছর পর তার বর্তমান স্ত্রী মিশেলের সঙ্গে পরিচয় হয়।

১৯৮৪ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার শিক্ষা জীবন শেষ করে কলাম্বিয়া চলে যান ওবামা। চিঠিতে ওবামার রাজনীতিতে আসার আগে তার মানসিক দোলাচলে ভোগার বিষয়টি ফুটে ওঠে। সে সময় তার কেমন মানসিক অবস্থা ছিল তা ধরা পড়েছে প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্টের এসব চিঠিতে।

৩০ পাতার ওই চিঠিগুলো ইমোরি বিশ্ববিদ্যালয়ের আর্কাইভে রাখা হয়েছে গবেষণার জন্য। ২০১৪ সালে এসব চিঠি হাতে পায় আটলান্টার ইমোরি বিশ্ববিদ্যালয়। এর আগে চিঠির অংশ বিশেষ প্রকাশিত হয়েছে ওবামাকে নিয়ে লেখা একটি বইয়ে। তবে এই প্রথম সব চিঠি প্রকাশ্যে আনা হলো। গবেষকেরা তার চিঠিগুলোকে গীতধর্মী ও কাব্যিক বলে বর্ণনা করেছেন।

চিঠিগুলোতে ওবামা তার বর্ণ, শ্রেণি ও আর্থিক অবস্থা নিয়ে নিরাপত্তাহীনতার কথা উল্লেখ করেছেন। কিছু চিঠিতে তার প্রথম জীবনের সংগ্রাম ও কর্মজীবনের কথা লেখা আছে। প্রেমিকার সঙ্গে তার বিভিন্ন বিষয়ে মতবিরোধের বিষয়টিও চলে আসে চিঠিতে।
ইমোরি বিশ্ববিদ্যালয়ের রোজ গ্রন্থাগারের পরিচালক রোজম্যারি ম্যাগি বলেন, এগুলো খুবই গুছিয়ে লেখা এবং এর মধ্যে একজন যুবকের ব্যক্তিত্ব ও পরিচয় ফুটে ওঠে।

১৯৮৩ সালে লেখা একটি চিঠিতে ওবামা লেখেন, ‘যদিও আমি আমার অনুভূতি নিয়ে দ্বিধাগ্রস্ত ছিলাম, আমি প্রায়ই তোমাকে নিয়ে ভাবতাম।’ ‘মনে হয়, যা পাওয়ার নয় তাই আমরা চাই। সেই চাওয়াই আমাদের মিলিয়ে দেয়, সেটাই আমাদের বিচ্ছেদ ঘটায়।’

একটি চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, তুমি জান যে আমি তোমাকে অনুভব করি। তোমার সম্পর্কে আমার ধারণা খুবই বিস্তৃত। তোমার প্রতি আমার আস্থা সমুদ্রের গভীরতার মতো এবং আমার ভালোবাসা সমৃদ্ধ ও অপ্রতুল।

ইমোরি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অ্যান্ড্রা গিলিস্পি বলেন, লেখাগুলো যতটা রোমান্টিক আশা করা হয়, ততটা রোমান্টিক নয় কারণ এগুলো তাদের সম্পর্কের শেষের দিকের চিঠি।

ওবামার চিঠিগুলোতে তার প্রেমিকাকে সম্বোধন করেছেন ‘প্রিয় অ্যালেক্স’ বলে। আর চিঠির শেষ হয়েছে ‘লাভ, বারাক’ শব্দ দুটো দিয়ে।

You Might Also Like