‘রুশ-মার্কিন সম্পর্ক বিপজ্জনকভাবে নিম্মপর্যায়ে’

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প অভিযোগ করে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার সম্পর্ক আগের যে কোনো সময়ের তুলনায় বিপজ্জনকভাবে অনেক বেশি নিম্মপর্যায়ে’ গিয়ে ঠেকেছে। বৃহস্পতিবার এক টুইটার বার্তায় তিনি এ কথা বলেছেন।

ওয়াশিংটন-মস্কোর সম্পর্কের এই অধোগতির জন্য ট্রাম্প অবশ্য মার্কিন কংগ্রেসকে দুষেছেন। রাশিয়ার ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিলে স্বাক্ষর করার পর কংগ্রেসকে দোষারোপ করে টুইট করলেন তিনি।

গত বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপের অভিযোগে রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপে গত মাসে বিল আনা হয় মার্কিন কংগ্রেসে। কংগ্রেসের উচ্চ ও নিম্ন উভয়কক্ষেই বিলটি ডেমোক্রেট ও রিপাবলিকানদের সমর্থন জোগাতে সক্ষম হয়। গত সপ্তাহে সিনেটে বিলটি পাসের পর এতে অনুমোদনের জন্য প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে পাঠানো ট্রাম্প অবশ্য বিলটি পাসের আগে এতে ভেটো দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত বুধবার তিনি ওই বিলে স্বাক্ষর করেছেন।

এদিকে বিলটি পাসের পর রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী দিমিত্রি মেদভেদভ ফেইসবুক পোস্টে লিখেছেন, এর মাধ্যমে রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র ‘পুরো মাত্রার বাণিজ্য যুদ্ধ’ শুরু করেছে। এর ফলে ট্রাম্প প্রশাসনের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক উন্নয়নের যে আশা ছিল তা শেষ হয়ে গেছে বলেও লিখেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার ট্রাম্প বিলটি পাসে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে লিখেছেন, ‘রাশিয়ার সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক আগের তুলনায় বিপজ্জনকভাবে নিম্মপর্যায়ে। আপনি এ জন্য কংগ্রেসকে, সেইসব লোককে ধন্যবাদ দিতে পারেন যারা আমাদেরকে হেলথকেয়ার বিল দিতে পারে না।’

সিনেটে রিপাবলিকান পার্টির সদস্য টম কটন অবশ্য রুশ-মার্কিন সম্পর্কের নিম্মপর্যায়ের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তবে এর জন্য ট্রাম্প যে কংগ্রেসকে দোষারোপ করছেন তা অস্বীকার করেছেন। তার দাবি, এর জন্য রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনই দায়ী। তার ইউক্রেন নীতি, অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ চুক্তি ভঙ্গ এবং বিভিন্ন পশ্চিমা দেশে হস্তক্ষেপ চেষ্টাই দায়ী।

You Might Also Like