শত্রু তুমি বন্ধু তুমি: ‘পুতিনের সঙ্গে বৈঠক ছিল অসাধারণ’

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, জার্মানির হামবুর্গে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে তার শুক্রবারের বেঠকটি ছিল ‘অসাধারণ’। শনিবার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র সঙ্গে আলাপ করতে গিয়ে ওই তথ্য জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

থেরেসা মে’কে পুতিন বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন ও তার সঙ্গে শুক্রবার পুতিনের একটি ‘অসাধারণ বৈঠক’ হয়েছে।

গত জানুয়ারিতে আমেরিকার প্রেসিডেন্টর দায়িত্ব গ্রহণের পর এই প্রথম পুতিনের সঙ্গে সরাসরি সাক্ষাতে মিলিত হলেন ট্রাম্প। বৈঠকটি দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে অনুষ্ঠিত হয় যা ছিল নির্ধারিত সময়ের চেয়ে অনেক বেশি। বৈঠকে দক্ষিণ-পশ্চিম সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার বিষয়ে দুই নেতা একমত হন।

সিরিয়ার যুদ্ধবিরতি ছাড়া শুক্রবারের বৈঠকে দুই প্রেসিডেন্ট ঠিক কি আলোচনা করেছেন সে সম্পর্কে কোনো তথ্যই গণমাধ্যমে আসেনি। তবে শেষ পর্যন্ত শনিবার পুতিন ও ট্রাম্প নিজেদের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক সম্পর্কে নীরবতা ভেঙে সাংবাদিকদের কাছে তথ্য জানান।

পুতিন বলেন, ২০১৬ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ সম্পর্কে ট্রাম্প তার কাছে ‘অনেকগুলো প্রশ্ন’ করেছেন এবং তিনি নিজের জানা তথ্য দিয়ে সেসব প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন। রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, আপাতদৃষ্টিতে তার উত্তরে ট্রাম্প সন্তুষ্ট হয়েছেন বলে মনে হয়। তবে ট্রাম্প সত্যিই বিষয়গুলো নিয়ে কি ভাবেন তা তিনিই বলতে পারবেন বলে পুতিন মন্তব্য করেন।

২০১৬ সালের নভেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করে রাশিয়াই ডোনাল্ড ট্রাম্পর্কে প্রেসিডেন্ট হতে সাহায্য করেছে বলে ব্যাপক অভিযোগ রয়েছে। সেইসঙ্গে মার্কিন গণমাধ্যমে একথা ফলাও করে প্রচারিত হয়েছে যে, বহু বছর আগে রাশিয়া সফরে গিয়ে ট্রাম্পের যে চারিত্রিক স্খলন হয়েছিল তার ভিডিও চিত্র মস্কোর হাতে রয়েছে এবং সেই ফুটেজ দিয়েই ট্রাম্পকে কাবু করে ফেলেছেন প্রেসিডেন্ট পুতিন।

এই দু’টি অভিযোগই রুশ প্রেসিডেন্ট অস্বীকার করেছেন। আর ওই দুই অভিযোগের সত্যতা সম্পর্কে জনমনে জল্পনা চলতে থাকার মধ্যেই প্রথমবারের মতো পুতিনের সঙ্গে সরাসরি সাক্ষাৎ করলেন ট্রাম্প।

You Might Also Like