ফরহাদ মজহারকে যশোর থেকে উদ্ধার

ঢাকা থেকে নিখোঁজ হওয়া কবি ও কলামিস্ট ফরহাদ মজহারকে যশোরের নওয়াপাড়া থেকে উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার রাতে নওয়াপাড়ায় একটি বাসে তাকে পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে র‍্যাব-৬।

ফরহাদ মজহারকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‍্যাব হেডকোয়ার্টারস সিনিয়র সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান।

খুলনা শিববাড়ি মোড়স্থ হানিফ পরিবহনের কাউন্টারের ম্যানেজার সাদিকের বরাত দিয়ে খুলনা র‍্যাব-৬ এর পরিচালক খন্দকার রফিকুল ইসলাম জানান, রাত সোয়া ৯টার দিকে ওই কাউন্টার থেকে আই থ্রি (I-3) নম্বরের এসি বাসের একটি টিকিট কাটেন ফরহাদ মজহার। পরে সাড়ে ৯টায় বাসটি ঢাকার উদ্দেশে শিববাড়ি ছাড়ে।

এই খবর খুলনা-যশোর মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে অবস্থান করা র‍্যাব ও পুলিশের চেকপোস্টে পাঠানো হয়। পরে খুলনার ফুলতলা থানা পুলিশ মোটরসাইকেল নিয়ে হানিফ পরিবহনের ওই গাড়ির পিছু নেয়। এরপর রাত সাড়ে ১১টার দিকে যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়ায় ওই বাস থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। সেখান থেকে তাকে খুলনার ফুলতলায় নিয়ে যাওয়া হয়।

ফুলতলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আসাদুজ্জামান মুন্সি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সোমবার ভোরে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার আদাবরের নিজ বাসা থেকে বের হয়ে ফরহাদ মজহার নিখোঁজ হন। তাকে অপহরণ করা হয়েছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়।

এরপর ফরহাদ মজহারের মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং শুরু খুলনায় তার অবস্থান শনাক্ত করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সেখানে নগরীর এপ্রোচ রোড এলাকায় অভিযান চালায় র‍্যাব। এরপর খুলনার নিউমার্কেট সংলগ্ন একটি গ্রিল হাউজে ফরহাদ মজহার অবস্থান করছেন বলে জানতে পারে র‍্যাব। গ্রিল হাউজ হোটেলের মালিক, ক্যাশিয়ার ও খাবার সরবরাহকারী তিন ব্যক্তি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে এ তথ্য জানান।

এই খবরে রাত ১০টায় সেখানে যায় র‌্যাব, কিন্তু ততক্ষণে তিনি সে স্থান ত্যাগ করেন। গ্রিল হাউজের মালিক আব্দুল মান্নান জানিয়েছেন, রাত ৮টা ৩৫ মিনিটে ফরহাদ মজহার তার হোটেলে আসেন। ভাত, ডাল ও সবজি দিয়ে খাওয়া-দাওয়া করেন। তারপর রাত ৯টার দিকে তিনি বের হয়ে যান। তিনি একা ছিলেন। তার পরনে সাদা লুঙ্গি, সাদা পাঞ্জাবি এবং মাথায় সাদা কাপড় ছিল।

ফরহাদ মজহারকে খাবার সরবরাহকারী হোটেল স্টাফ রেজাউল করিম জানান, তাকে (ফরহাদ মজহার) শারীরিকভাবে বেশ ক্লান্ত দেখাচ্ছিল। তার চোখে ঘুম ঘুম ভাব ছিল। ভাত খেয়ে তিনি বের হয়ে যান। হোটেলের ক্যাশিয়ার ইব্রাহিম জানিয়েছেন, তার (ফরহাদ মজহার) ১৭০ টাকা বিল হয়েছিল। তিনি নিজে বিল পরিশোধ করে হোটেল থেকে বের হয়ে যান।

You Might Also Like