সাভারে শরীরে আগুন দিয়ে রিকশা জব্দের প্রতিবাদ রিকশা চালকের!

শুক্রবার দুপুরে আশুলিয়ার বাইপাইল ত্রিমোড়ে ট্রাফিক পুলিশ ব্যাটারি চালিত রিকশাটি জব্দ করলে নিজের শরীরে আগুন ধরিয়ে দেন চালক শামীম শিকদার।

সাভারের আশুলিয়ায় রিকশা জব্দের প্রতিবাদে শরীরে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন দিয়েছে শামীম সিকদার (৩৫) নামের এক রিকশাওয়ালা। গুরুতর অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, বাইপাইল-আব্দুল্লাহপুর সড়ক দিয়ে রিকশায় যাত্রী নিয়ে যাচ্ছিলেন শামীম সিকদার। মহাসড়ক দিয়ে ব্যাটারিচালিত রিকশা চালানো নিষিদ্ধ হওয়ায় তা জব্দ করেন ট্রাফিক সার্জেন্ট আমিনুর রহমান। শামীম শিকদার তার রিকশাটি ফেরত দেয়ার জন্য অনুরোধ জানান। কিন্তু রিকশা ফেরত না পাওয়ায় শামীম সিকদার সেখান থেকে চলে যান।

কিছুক্ষণ পর বাইপাইল ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে এসে নিজের শরীরে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন শামীম সিকদার। পরে ওই পুলিশ কর্মকর্তা তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যান। শরীরের ২৫ শতাংশ পুড়ে যাওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান সেখানকার চিকিৎসকরা। পুলিশ হেফাজতে বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে।

শামীম সিকদারের বাড়ি বাগেরহাট জেলার মোড়েলগঞ্জ উপজেলার ভাইজোড়া গ্রামে। আশুলিয়ার নরসিংহপুরে পরিবারসহ ভাড়া থাকতেন তিনি।

এ বিষয়ে ট্রাফিক সার্জেন্ট আমিনুর রহমান বলেন, ‘মহাসড়কে রিকশা চালানো নিষিদ্ধ। আইন অমান্যকারীদের রিকশা প্রতিনিয়তই জব্দ করা হয়। কিন্তু এতে ওই রিকশাচালক শরীরের আগুন দিয়ে বসবেন সেটা আমার ভাবনার অতীত ছিল।’

You Might Also Like