ফরহাদ মজহারের কী অপরাধ

ফরহাদ মজহার এখনো বিপর্যস্ত, অসুস্থ ও কিংকর্তব্যবিমূঢ় অবস্থায় হাসপাতালে রয়েছেন। অজানা আতঙ্ক এখনো তাকে তাড়া করছে। তার দেয়া জবানবন্দী আদালতের হাতে। তিনি শঙ্কামুক্ত হয়ে আবার কলম ধরবেন। জাতিকে নির্দেশনা দেবেন,

বিভিন্ন ধর্মে রোজা ও উপবাস

তাওরাত, জবুর, ইঞ্জিল ও কুরআন সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য আসমানি কিতাব। পবিত্র কুরআন ছাড়া অন্য তিনটি আসমানি কিতাব অবিকৃতভাবে এখন পাওয়া যায় না। সংস্করণের পর সংস্করণ করে এর অনুসারী হওয়ার দাবিদাররাই কিতাবগুলোর

এখন সময়টা অপেক্ষারবিবিধ প্রসঙ্গ

পর পর কয়েকটি ঘটনা আবার সর্বত্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে। আত্মঘাতী হামলার এই নতুন সংস্করণ আসল রোগ না উপসর্গ, কেউ নিশ্চিত করতে পারছেন না। জনগণের কাছে স্পষ্ট নয়, এরা কারা ও কেন

বাঙালি মুসলমানের স্বাতন্ত্র্য ও ইউনেস্কোবিবিধ প্রসঙ্গ

আবুল মনসুর আহমদ বাঙালি মুসলমানের সাংস্কৃতিক শেকড় সন্ধান করেছেন। আহমদ ছফা চেয়েছেন বাঙালি মুসলমানের মনটা ছুঁয়ে দেখতে। বাংলা সাহিত্যের সিপাহসালারের মতো আল মাহমুদ স্পষ্ট করে বলে দিলেন ঢাকা বাংলা ভাষার

মিনা ট্র্যাজেডি : শয়তানকে জিততে দেয়া যাবে না

পবিত্র কাবা ও কাবার প্রভাববলয়াধীন এলাকা আল্লাহর রহমতপ্রাপ্ত। খানায়ে কাবার রক্ষক খোদ আল্লাহ রাব্বুল আলামিন। হাজীরা আল্লাহর মেহমান। পুরো হজের আনুষ্ঠানিকতায় আল্লাহর নির্দেশ ও নবী-রাসূলের অনুসরণ অপরিহার্য। তাই হজকেন্দ্রিক ট্র্যাজেডি

লতিফ সিদ্দিকী, রেহমান সোবহান ও কর্নেল অলির বক্তব্য

ক. ফ্রেডরিখ নিৎশের বিখ্যাত উক্তি হচ্ছে, ‘বারবার নিজেকে সঠিক ঘোষণা করার জেদ ধরার চেয়ে ভুল স্বীকার করে নেয়া ভালো’। এ শিক্ষাটা আমরা কেউ কাজে লাগাই না। তার পরও জনগণের অনুভূতিকে

দায়টা আওয়ামী লীগ নিক বঙ্গবন্ধু জাতির থাকুক

ক. মায়ের গর্ভে গুলিবিদ্ধ শিশুটি এখন বাঁচার সংগ্রাম করছে। আমাদের সবার মনোযোগ শিশুটির বাঁচা-মরার লড়াইয়ের দিকে। মাঝে মধ্যে শিশুটির মায়ের আর্তি-আকুতিও আমাদের মনোযোগ আকর্ষণ করছে। কিন্তু আমরা বেমালুম ভুলে থাকছি

বিএনপি-জামায়াত কর্মীরা আওয়ামী লীগার হয়ে যাচ্ছে!

বিক্ষিপ্ত কিছু খবর প্রচারিত হচ্ছে, বিএনপি-জামায়াতের প্রান্তিক স্তরের কিছু লোক সরকারি দলে যোগদান করছে। এই নিয়ে ক্ষমতাসীন দলের প্রতিক্রিয়া জানা যায় না। বিএনপি-জামায়াতও দলীয়ভাবে কোনো বক্তব্য দেয় না। নেতৃত্বপর্যায়ের না

মৃত্যু নিয়ে এ কেমন খেলা

১. অভিজিতের এমন মর্মান্তিক মৃত্যু মেনে নেয়া যায় না। এ ধরনের হত্যা কার ব্যর্থতার পরিণতি কিংবা কাদের ইন্ধনের ফসল, আমরা জানি না। পুলিশ কু খুঁজে পায়নি। একজন ফারাবিকে বারবার গ্রেফতার

সমাধানের সদর রাস্তা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে

সবাই জানতে চান কী হতে যাচ্ছে। যারা জানতে চান তারাও রাজনীতির বোদ্ধা মানুষ। তার পরও আশা করেন আমরা মিডিয়ার মানুষ, বিভিন্ন তথ্যসূত্র আমাদের চোখের সামনে থাকে। তা ছাড়া মঞ্চের নেপথ্যে