৭ বছর শাস্তি ভোগের পর মুক্ত হলেন ভারতীয় পেসার

আইপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে ২০১৩ সালে ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত হয়েছিলেন ভারত দলের পেসার শান্তাকুমারন শ্রীশান্ত।

সাত বছর পর ১৩ সেপ্টেম্বর শেষ হলো সেই নির্বাসনের সময়।

সে হিসাবে ক্রিকেটে ফিরতে আর কোনো বাধা নেই তার। এত দিন এই দিনটির অপেক্ষায় নির্ঘুম রাত কাটিয়েছেন শ্রীশান্ত।

নির্বাসন থেকে মুক্তির পর এক প্রতিক্রিয়ায় শ্রীশান্ত বলেন, এই দিনটার জন্য দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করেছি। আজ আমার ও পুরো পরিবারের জন্য খুশির দিন। শাস্তি থেকে মুক্তি পেয়ে নিজেকে আজ স্বাধীন মনে হচ্ছে। আমি এটি ভেবে খুব আনন্দিত যে, ২২ গজের মাঠে আবার বল করতে পারব। দারুণ উচ্ছ্বসিত আমি।

ভারতের হয়ে দুবার বিশ্বকাপজয়ী দলে খেলেছেন এ পেসার। চমৎকার ফর্মে ছিলেন তিনি।

কিন্তু ২০১৩ সালে স্পট ফিক্সিংয়ের অভিযোগে রাজস্থান রয়্যালস দলে শ্রীশান্ত এবং তার দুই সতীর্থ অজিত চান্দিলা ও অঙ্কিত চাভানকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। শাস্তি হিসেবে শ্রীশান্তকে আজীবন ক্রিকেট থেকে নির্বাসন করে ভারতীয় বোর্ড।

তবে এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে পর শ্রীশান্তের ওপর আজীবন নির্বাসনের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করতে বিসিসিআইকে নির্দেশ দেন কেরালা হাইকোর্ট।

সেই নির্দেশেই শ্রীশান্তের শাস্তির মেয়াদ কমে সাত বছরে নেমে আসে। আজ ১৩ সেপ্টেম্বর সেই মেয়াদকাল শেষ হলো।

ভারতের হয়ে এ পর্যন্ত ২৭ টেস্টে খেলে ৮৭ উইকেট নিয়েছেন শ্রীশান্ত। ৫৩ ওয়ানডে খেলে ৭৫ উইকেট নিয়েছেন। আইপিএলে ৪৪ ম্যাচ খেলে ৪০ উইকেট জমা করেছেন ঝুলিতে।

তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

You Might Also Like