৫ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান সবার জানা: মার্কিন পররাষ্ট্র মুখপাত্র

বাংলাদেশের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থানের কথা সবারই জানা বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জেন পাসাকি।

বুধবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেছেন।

পাসকি বলেন, ‘গত জানুয়ারিতে যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে বা গণতন্ত্র নিয়ে আমাদের যে উদ্বেগ, তা সবাই জানেন এবং আমরা প্রায়ই তা বলে আসছি। এ বছরের শুরুর দিকে আমরা নির্বাচনের ব্যাপারে একটি বিবৃতি দিয়েছিলাম, যেখানে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরা হয়েছে।’

‘বাংলাদেশের সরকার ও বিরোধী দলগুলোকে একটি সংলাপে বসার জন্য আমরা উৎসাহিত করেছিলাম, যেন জনগণের মতামত দেয়ার একটি উপায় তারা খুঁজে বের করতে পারেন এবং অন্যরা তা শ্রদ্ধা করতে পারেন’ যোগ করেন তিনি।

মার্কিন পররাষ্ট্র মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা উস্কানিমূলক সহিংসতার বিরুদ্ধে কথা বলেছি। এনজিওসমূহ ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের বিপক্ষে কথা বলেছি এবং এগুলো আমরা নিয়মিতই করে থাকি। আমরা এটা অব্যাহত রাখবো, যতদিন পর্যন্ত আমরা তা ন্যায্য বলে বোধ করবো।’

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ সংলাপের যৌথ বিবৃতিতে দেয়া গণতন্ত্রের ব্যাপারে জোর না দেয়ার বিষয়টি নজরে আনলে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র অঙ্গীকারবদ্ধ। মধ্যপন্থি, ধর্মনিরপেক্ষ মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে বাংলাদেশের সাফল্য ওই অঞ্চল এবং তার বাইরেও ইতিবাচক ও দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব রাখবে।

‘যৌথ বিবৃতিতে বাংলাদেশ সরকার ও দেশটির জনগণের সঙ্গে আমাদের বৃহৎ পরিসরের সম্পর্কের বিষয়টি প্রতিফলিত হয়েছে’ যোগ করেন পাসকি।

You Might Also Like