৪১ ওভার রেখেই ফতুল্লা টেস্টের তৃতীয় দিন শেষ

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার একমাত্র টেস্টে আবারো বৃষ্টি বাগড়া দিয়েছে। ফলে তৃতীয় দিনের খেলা পরিত্যক্ত হয়েছে দিনের ৪০.৩ ওভার থাকতেই।

এ নিয়ে ফতুল্লা টেস্টের তিন দিনের খেলাই পরিত্যক্ত হলো। এর মধ্যে দ্বিতীয় দিন একটি বলও মাঠে গড়ায়নি। তিন দিন মিলে খেলা হয়েছে ১০৩.৩ ওভার।

তবে তৃতীয় দিন শুক্রবার বিকেল চারটার দিকে খেলা পরিত্যক্ত হওয়ার আগে পর্যন্ত ভারত তাদের প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট করেছে ৪৬২ রান। হরভাজন সিং ৭ এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন ২ রানে অপরাজিত আছেন।
প্রথম দিন ভারতের ব্যাটসম্যানরা শাসন করলেও তৃতীয় দিনে এসে সাকিব-জুবায়ের স্পিনে ছড়ি ঘুরিয়েছেন। সাকিব ৪টি এবং যুবায়ের ২টি উইকেট তুলে টাইগারদের দারুণভাবে খেলায় ফিরিয়েছেন।

শুক্রবার সকালে নির্ধারিত সময়ের আধা-ঘণ্টা আগেই খেলা শুরু হয়। প্রথম দিনের বিনা উইকেটে ২৩৯ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামেন দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান (১৫০) ও মুরালি বিজয় (৮৯)।

দিনের শুরুতে বেশ সতর্কভাবে ব্যাট করতে থাকে ভারতীয় দল। ধাওয়ানকে অনুসরণ করে শতক তুলে নেন মুরালি বিজয়ও। ভারতীয় শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। শিখর ধাওয়ানকে আউট করে বাংলাদেশ শিবির স্বস্তি এনে দেন বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার।

ধাওয়ান ১৭৩ রান করে সাকিবের বলে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন। এরপর মুরালির সঙ্গে জুঁটি বাধেন রোহিত শর্মা। রোহিতকে সরাসরি বোল্ড করেন সাকিব। রোহিত মাত্র ৬ রান করতে সমর্থ হন।

এরপর বিজয়ের সঙ্গে জুটি বাধেন দলীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ভারত সেরা এই ব্যাটসম্যানকে ক্রিজে সেট হওয়ার আগেই গুগলিতে বোল্ড করেন জুবায়ের হোসেন। কোহলি মাত্র ১৪ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

তিন উইকেটে ৩৯৮ রান নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে যায় ভারত। এরপর খেলায় বাধা হয়ে দাঁড়ায় বৃষ্টি। এক ঘণ্টা বৃষ্টির বিরতি শেষে খেলা শুরু হলে দলীয় ৪২৩ রানে আবারো বৃষ্টি নামে। পুনরায় খেলা শুরু হলে ভারতীয় দলে চতুর্থ আঘাত হানেন সাকিব। এবার তার শিকার মুরালি বিজয়।

ভারতের এই ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার আগে করেন ১৫০ রানের অসাধারণ একটি ইনিংস। পরে ঋদ্ধিমান শাহকে জুবায়ের বোল্ড করেন ৪৪৫ রানে। আর আজিঙ্কা রাহানেকে শতক বঞ্চিত করেন সাকিব। দলীয় ৪৫৩ রানে সরাসরি বোল্ড হওয়ার আগে রাহানে করেন ৯৮ রান।

এরপর ম্যাচে আজ তৃতীয় দফা বৃষ্টি হানা দেয় চা বিরতির ঠিক আগে। শেষ পর্যন্ত ওই বৃষ্টিই ম্যাচের পরিণতি ডেকে আনে। বিকেল চারটার দিকে আম্পায়ার মাঠ পরিদর্শন করে খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন।

You Might Also Like