২৯ ঘণ্টা আটকে রেখে স্বামীকে ‘ধর্ষণ’, দোষী সাব্যস্ত স্ত্রী!

এই প্রথম বৈবাহিক ধর্ষণে অভিযুক্ত হলেন কোনও মহিলা। জোর করে স্বামীর সঙ্গে যৌনসম্পর্ক স্থাপনের অভিযোগ উঠল দক্ষিণ কোরিয়ার এক মহিলার বিরুদ্ধে। বছর চল্লিশের ওই মহিলার নাম সিম। গ্রেপ্তারের পর তাঁকে আদালতে তোলা হলে, মঙ্গলবার তাঁকে দোষীসাব্যস্ত করা হয়েছে।
সিওল পুলিশের তরফে ঘটনার তদন্তকারী গোয়েন্দা আদালতকে জানিয়েছেন, প্রায় ২৯ ঘণ্টা স্বামীকে ঘরবন্দি করে রাখেন ওই মহিলা। এবং প্রায় সবটুকু সময়েই তাঁকে জোর করে যৌনসম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করেন সিম। স্বামীর অভিযোগের ভিত্তিতে সিমকে গ্রেপ্তার করা হয়।
২০১৩ সালের মে মাসে বৈবাহিক ধর্ষণকে অপরাধ বলে আখ্যা দিয়েছিল দক্ষিণ কোরিয়ার শীর্ষ আদালত। তখন থেকেই বৈবাহিক ধর্ষণ দেশে অপরাধ বলে গণ্য করা হয়।-সূত্র: এনাডু।

You Might Also Like