২০ দল ঘোষিত দেশব্যাপী হরতাল ও অবরোধের সমর্থনে নিউইয়র্কে বিক্ষোভ

সরকার কর্তৃক দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে তাঁর দলীয় কার্যালয়ে নিরাপত্তার নামে অবৈধভাবে অবরুদ্ধ করে রাখা ও দেশব্যাপী ২০ দল ঘোষিত হরতাল ও অবরোধের সমর্থনে নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ করে নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইট্সে। গত ১১ জানুয়ারী শনিবার সন্ধ্যায় খাবার বাড়ি রেষ্টুরেন্টের সামনে এই সমাবেশে স্টেট বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম.এ. খালেক আকন্দ সভাপতিত্ব  করেন। সাধারণ সম্পাদক সাইদুর রহমান সাইদ অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।

বক্তাগণ বলেন সরকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া’র গণতন্ত্র পুর্ণরুদ্ধারের লক্ষ্যে তত্ত্বাবধায়ক ব্যবস্থা পূণঃপ্রতিষ্ঠার আন্দোলনে বাধা দিয়ে তাঁকে তাঁর দলীয় কার্যালয়ে বিগত ৯ দিন অন্যায়ভাবে অবরুদ্ধ করে রেখেছে।

দেশের জনগণের মৌলিক অধিকার ভোটাধিকারকে পাশ কাটিয়ে বিনাভোটে নির্বাচিত শেখ হাসিনা সরকার অবৈধভাবে দেশ চালাচ্ছে। গণমানুষের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তাঁর নের্তৃত্বে জাতীয়তাবাদী শক্তি যখন তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুণপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে তখন নিরস্ত্র নেতাকর্মীর উপর বর্বর র্নিযাতন ও সরকারী বাহিনী কর্তৃক হত্যা, গুম হামলা মামলা চালাচ্ছে।

নেতৃবৃন্দ আরো বলেন- বেগম খালেদা জিয়া’র ডাকে আহুত দেশব্যাপী অবরোধ স্বৈরাচারীনী শেখ হাসিনার পতন না হওয়া পর্যন্ত অব্যহত রাখার অনুরোধ করেন।

তারা আরো বলেন- ১৯৭১ সালে শহিদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষনার মাধ্যমে যেভাবে দেশের মানুষ মুক্তিযুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছিলেন, তেমনি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার “দেশ বাঁচাও, মানুষ বাঁচাও” আন্দোলনের “দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধে” ঝাঁপিয়ে পড়ার আহ্বান জানান।

সভায় বক্তব্য রাখেন- ফেনী জেলা বিএনপি’র উপদেষ্টা- জসীম উদ্দিন ভূঁইয়া, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি’র সাবেক যুগ্ম সম্পাদক- কাজী শাখাওয়াত হোসেন আজম, জাসাস কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক সম্পাদক- গোলাম BNPNY_1ফারুক শাহীন, সিটি বিএনপি’র সভাপতি- হাবিবুর রহমান সেলিম রেজা, জাবি’র সাবেক ছাত্রনেতা- জীবন শফিক, সাধারণ সম্পাদ- মোঃ আশরাফ হোসেন, তরিকুল্লা চৌধুরী দিপু, রুহুল আমিন নাসির, মোঃ বায়েজিদ।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- বিশিষ্ট মক্তিযোদ্ধা ওয়াহেদ আলী মন্ডল, মোস্তাক আহমেদ, রইছ উদ্দিন, মোঃ আবু নাসের চৌধুরী, কামাল উদ্দিন দিপু, মোঃ মাহাবুবুল আলম, মোঃ হাসান, আলমগীর হোসেন মৃধা, শহীদুল ইসলাম শিকদার, রফিকউদ্দিন বাহার ও ইকবাল আনসারী প্রমূখ।

সমাপ্তিতে আন্দোলনে শহীদ এবং হতাহতদের প্রতি সংগ্রামী সমবেদনা জানান; একই সাথে সন্তান হারা মা’দের প্রতি গভীর দুঃখবোধ প্রকাশ করে আগামী দিনে তাদের পাশে থাকার দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

You Might Also Like