হয়রানি বন্ধে আদালতে জামায়াত আইনজীবীরা

মানবতা বিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত মাওলানা মতিউর রহমান নিজামী এবং আলী আহসান মুহাম্মদ মুজাহিদের মামলার আইনজীবীদের হয়রানি বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করা হয়েছে।

ব্যারিস্টার ইমরান আব্দুল্লাহ সিদ্দিকী জানান, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের সভাপতি এডভোকেট খন্দকার মাহাবুব হোসেনের সহযোগিতায় আইনজীবীদের হয়রানি না করতে এবং পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাধা না দেয়া হয়, এ ব্যাপারে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

রবিবার আপিল বিভাগের সংশ্লিষ্ট শাখায় ওই দুই মামলার আইনজীবী এডভোকেট শিশির মনির ও এডভোকেট আসাদ উদ্দিনের পক্ষে আবেদনটি দায়ের করা হয়।

আবেদনে এ দুইজন ছাড়াও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের আসামিপক্ষের কোনো আইনজীবীকেই যেনো হয়রানি না করা হয় এ ব্যাপারে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, আইনজীবী শিশির মুহাম্মদ মুনিরের বাসায় ২২ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬টা ২০ মিনিটে পুলিশ অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় তিনি বাসার বাইরে অবস্থান করছিলেন। প্রায় এক ঘণ্টা বিরতির পর ডিবি পুলিশসহ আরো অনেক পোশাকধারী পুলিশ তার মোহাম্মদপুরের বাসায় আবারো তাকে খুঁজতে আসে এবং তাকে না পেয়ে তার গাড়িচালক আ. আজিজকে নিয়ে যায়।

আরেক আইনজীবী এডভোকেট আসাদ উদ্দিনকে যমুনা সেতুর পশ্চিম পাড়ের কড্ডার মোড় থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর ২টায় ডিবি পুলিশ বাস থেকে তুলে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

এর পর গত বৃহস্পতিবার রাতে গণমাধ্যমে ওই আইনজীবীদের পাঠানো এক সংবাদ বিবৃতিতে এমন তথ্য জানানো হয়। বিবৃতিতে আরো বলা হয়, সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ ছাড়াই আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে ডিফেন্স আইনজীবীদের বাসায় পুলিশের অভিযান পরিচালনা ও ডিবি কর্তৃক একজন আইনজীবীকে তুলে নিয়ে যাওয়া আইনজীবীদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে বাধা দেয়ার শামিল।

You Might Also Like