হাইকোর্টের অভিনব সাজা: সিকদার গ্রুপের দুই ভাইকে ১০ হাজার পিস পিপিই জরিমানা

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে একজন ব্যাংক কর্মকর্তাকে হত্যাচেষ্টা মামলায় অভিযুক্ত হয়ে সিকদার গ্রুপ অব কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদার গ্রেফতার এড়াতে বিদেশে সটকে পড়ে।

বিদেশের অবস্থান করে আইনজীবীর মাধ্যমে হাইকোর্টের ভার্চুয়াল বেঞ্চে দুই ভাই আগাম জামিন আবেদন করে। আজ (সোমবার) সে আবেদনের শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে আদালত দুই ভাইকে জামিন না দিয়ে ‘বেআইনি জামিন আবেদনের মাধ্যমে আদালতের সময় নষ্ট করায়’ ১০ হাজার পিস পিপিই জরিমানা করেছে।

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে সেগুলো জমা দিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রারের কাছে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছে আদালত।

ওই দুই ভাই এক্সিম ব্যাংকের এমডিকে ডেকে নিয়ে গুলি করে হত্যা চেষ্টা মামলার আসামি। মামলা হওয়ার এক সপ্তাহ পর তারা এয়ার অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে দেশ ত্যাগ করেন। মামলার আসামি দুই ভাই এখন থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে অবস্থান করছেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ব্যাংক কর্মকর্তাকে হত্যা চেষ্টা মামলায় রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদারের আগাম জামিনের আবেদনটি গত ২ জুলাই ইমেইলের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট আদালতে জমা দেওয়া হয়। তাদের পক্ষে আইনজীবী হিসেবে আজমালুল হোসেন কিউসি, সাঈদ আহমেদ ও মুহাম্মদ সাইফুল্লাহ মামুনের নাম ছিল।

মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়েছে, ৫০০ কোটি টাকা ঋণ প্রস্তাবের বিপরীতে বন্ধকী সম্পত্তি পরিদর্শনের নামে এক্সিম ব্যাংকের এমডিসহ দুই কর্মকর্তাকে গত ৭ মে ডেকে নিয়ে যায়। এ সময় ব্যাংকটির এমডির কাছে একটি সাদা কাগজে জোর করে সই নেয় দু’ভাই। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় গত ১৯ মে হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় গ্রেফতার এড়াতে সাতদিনের মাথায় দেশত্যাগ করেন দুই ভাই।

You Might Also Like