হলো না রেকর্ড গড়া

সবচেয়ে বেশি বয়সি ব্যক্তি হিসেবে বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টে আরোহণ করে রেকর্ড গড়ার প্রত্যয় শেষ হলো মৃত্যুতে।

নেপালের এক নাগরিক ৮৫ বছর বয়সে মাউন্ট এভারেস্টে আরোহণ করতে গিয়ে বেস ক্যাম্পে মারা গেছেন।

প্রাক্তন গুর্খা সেনা মিন বাহাদুর শেরচান জাপানের ইউচিরো মিউরার রেকর্ড ভেঙে সবচেয়ে বেশি বয়সি ব্যক্তি হিসেবে মাউন্ট এভারেস্ট জয়ের প্রচেষ্টা গ্রহণ করেন। ২০১৩ সালে মিউরা ৮০ বছরে বয়সে এভারেস্ট চূঁড়ায় ওঠেন। অবশ্য এর আগে ২০০৮ সালে ৭৬ বছর বয়সে এভারেস্ট চূঁড়ায় পা রেখেছিলেন শেরচান।

শেরচানের মৃত্যুর এক সপ্তাহে আগে সুইস আরোহী উয়েলি স্টেক (৪০) এভারেস্টে চূঁড়ায় আরোহণের প্রস্তুতিকালে মারা যান।

নেপালের পর্যটন অফিসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শনিবার বিকেলে বেস ক্যাম্পে মারা যান শেরচান। কাঠমান্ডু পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, চিকিৎসকদের ধারণা তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায় মারা গেছেন।

সবচেয়ে বেশি বয়সি ব্যক্তি হিসেবে এভারেস্টে আরোহরণের রেকর্ডের মালিক হওয়ার জন্য শেরচান ও মিউরার মধ্যে এক ধরনের প্রতিযোগিতা রয়েছে। ২০১৩ সালে মিউরা রেকর্ড করার পর ওই বছরেই শেরচান তা ভাঙার চেষ্টা করেন। কিন্তু আবহাওয়া প্রতিকূলে চলে যাওয়া সেবার আবার আরোহণ করতে পারেননি তিনি।

২০১৫ সালেও শেরচান এ ধরনের একটি উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু ওই বছর নেপালে ভয়াবহ ভূমিকম্প হওয়ায় তা আর হয়নি।

কেন এত বেশি বয়সে এভারেস্টে আরোহণ করে রেকর্ড গড়তে চান- জার্মান সংবাদসংস্থা ডিপিএর এমন প্রশ্নের জবাবে মার্চ মাসে শেরচান বলেছিলেন, ‘এভারেস্টে আরোহণ করে আমি রেকর্ড করতে চাই এ কারণে যে, তা মানুষকে বড় স্বপ্ন দেখাতে উদ্বুদ্ধ করবে… আমার মতো বয়স্ক মানুষের মধ্যে গর্ববোধ লালন করতে সাহায্য করবে।’

You Might Also Like