সৌদি আরব পাকিস্তানের ‘প্রতিরক্ষা অংশীদার’: পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী

পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খুররম দস্তগীর খান সৌদি আরবকে তার দেশের প্রতিরক্ষা অংশীদার বলে দাবি করেছেন।

তিনি শুক্রবার ইসলামাবাদে বলেন, সৌদি আরবসহ কয়েকটি দেশের সঙ্গে পাকিস্তানের প্রতিরক্ষা চুক্তি রয়েছে। এ কারণে রিয়াদের সঙ্গে প্রতিরক্ষা সম্পর্ক শক্তিশালী করার চেষ্টা করছে ইসলামাবাদ।

সৌদি আরবে পাকিস্তানের সেনা পাঠানোর সিদ্ধান্ত যখন দেশের ভেতরেই চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে তখন পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী এসব কথা বললেন।

সৌদি আরবে সেনা পাঠানোর বিষয়ে সরকারের ব্যাখ্যা জানতে পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খুররম দস্তগীর খানকে সিনেটে তলব করা হয়েছে। সোমবার তাকে পাক সংসদের উচ্চকক্ষে হাজির হতে হবে। সিনেট চেয়ারম্যান রাজা রব্বানি প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে এই নির্দেশ দেন।
এ ছাড়া, ইয়েমেনের বিরুদ্ধে সৌদি আরবের অন্যায় আগ্রাসনের কারণে পাকিস্তানের জনগণ রিয়াদের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার দাবি জানাচ্ছেন। তারা উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর প্রতি সৌদি সমর্থনের কারণেও রিয়াদের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে রয়েছেন।

কিন্তু ইসলামাবাদ সরকার দেশের জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষার বিপরীতে অবস্থান নিয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে সামরিক সম্পর্ক শক্তিশালী করছে।

পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী কাশ্মির সংকট নিয়েও কথা বলেন। তিনি দাবি করেন, দক্ষিণ এশিয়ার নিরাপত্তাগত সব সমস্যার জন্য নয়াদিল্লি দায়ী। খুররম দস্তগীর খান বলেন, ভারত সরকার তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে চায়।

You Might Also Like