সোমালিয়ায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮৯

সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিসুর দুটি ব্যস্ত এলাকায় পৃথক বোমা বিস্ফোরণে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৮৯ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো দুই শতাধিক।

হর্ন অব আফ্রিকার এই দেশটিতে এ যাবৎকালে এটাই সবচেয়ে বড় বোমা হামলার ঘটনা। রোববার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য ইনডিপেনডেন্ট এ তথ্য জানিয়েছে।

শনিবার শহরে কেন্দ্রস্থল কে-ফাইভ চৌরাস্তার পাশে অবস্থিত সাফারি হোটেলের সামনে একটি ট্রাক বোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এই হোটেলটির পাশে একই লাইনে বিভিন্ন সরকারি দপ্তর, রেস্তোরাঁ ও বহু দোকান রয়েছে। বিস্ফোরণে ওই ভবনগুলোর সামনের অংশ বিধ্বস্ত হয় এবং রাস্তায় থাকা গাড়িগুলোতে আগুন ধরে যায়। এর দুই ঘন্টা পর শহরের মদিনা এলাকায় আরেকটি বোমার বিস্ফোরণ হয়। শনিবার রাতে নিহতের সংখ্যা প্রাথমিকভাবে ২০ বললেও পরে এই সংখ্যা বাড়তে শুরু করে। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তারা ১৩৭ জনের মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত হতে পেরেছেন। হতাহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার কারণে নিহতের সংখ্যা নির্দিষ্ট করে জানানো মুশকিল হয়ে পড়েছে। তবে নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন কর্মকর্তারা।

পুলিশের ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ হুসেইন জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের শিকার অনেক আহত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছে।

রেডক্রস জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে সোমালি রেডক্রসের চার স্বেচ্ছাসেবীও রয়েছে। এখনো বেশ কয়েকজন স্বেচ্ছাসেবী নিখোঁজ থাকায় নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

কোনো গোষ্ঠী এই হামলার দায় এখনো স্বীকার করেনি। তবে দেশটির সরকারের সঙ্গে যুদ্ধরত জঙ্গিগোষ্ঠী আল শাবাব মাঝে মাঝে রাজধানীতে হামলা চালিয়ে থাকে।

You Might Also Like