সুলেমান শাহ’র সমাধি তুলে নিতে সিরিয়ায় তুর্কি সেনা অভিযান

সিরিয়ার একটি ওসমানিয় সমাধি’র পাহারায় নিযুক্ত তুর্কি সেনাদের সরিয়ে নিতে সেনা অভিযান চালিয়েছে তুরস্ক। সিরিয়ার আলেপ্পো প্রদেশে উগ্র তাকফিরি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী আইএসআইএলের নিয়ন্ত্রিত কারাকোজাক গ্রামে অবস্থিত সমাধিটি ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিয়েছিল এ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী।

 

তুরস্কের টিআরটি টেলিভিশন আজ (রোববার) জানিয়েছে, গতরাতে জঙ্গিবিমানের ছত্রছায়ায় স্থলবাহিনী পাঠায় তুরস্ক। তুর্কি সেনারা তাদের সহকর্মীদের সরিয়ে নেয়ার পাশাপাশি সমাধিটিও তুলে নিয়ে যায়।

 

ওসমানিয় সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা প্রথম ওসমানের দাদা সুলেমান শাহ’র এই সমাধিসৌধ পাহারার জন্য এতদিন সেখানে ৪০ জন তুর্কি সৈন্য মোতায়েন ছিল। তাদেরকে উদ্ধারের জন্য শনিবার রাতে তুর্কি বিশেষ বাহিনীর প্রায় ৭০০ সৈন্য অভিযান চালায়।

 

তুর্কি প্রধানমন্ত্রী আহমেত দাউদওগলু ২০১৪ সালের মার্চ মাসে পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকার সময় বলেছিলেন, সমাধিটির নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য তার দেশ সম্ভাব্য সবকিছু করবে। সমাধিটি সিরিয়ার ভেতরে অবস্থিত হলেও ১৯২১ সালে ফ্রান্সের সঙ্গে তুরস্কের স্বাক্ষরিত চুক্তি অনুযায়ী এটি তুরস্কের ভূখণ্ড হিসেবে বিবেচিত হচ্ছিল। দাউদওগলু আজ বলেছেন, সুলেমান শাহ’র সমাধি এখন সিরিয়ার ভেতরে অন্য কোথাও স্থাপন করা হবে। তুরস্ক তার ‘নিজ ভূখণ্ডে’ এ অভিযান চালিয়েছে বলে ঘোষণা করলেও সিরিয়া একে ‘চরম আগ্রাসন’ বলে মন্তব্য করেছে।

 

সমাধিটি সিরিয়ার তুর্কি সীমান্তবর্তী কুর্দি অধ্যুষিত শহর কুবানির কাছে অবস্থিত। সম্প্রতি শহরটি আইএসআইএলের হাত থেকে পুরোপুরি মুক্ত করেছে কুর্দি যোদ্ধারা। সিরিয়ার অভ্যন্তরে তুর্কি সেনা অভিযানের সময় একজন সৈন্য নিহত হয়েছে। আঙ্কারা এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, সমাধিসৌধে যাওয়ার পথে ‘দুর্ঘটনায়’ ওই সৈন্য প্রাণ হারিয়েছে।

You Might Also Like