সিলেটে মাইকে ঘোষণা দিয়ে সংঘর্ষ, আহত ২০

সিলেটে মাইকে ঘোষণা দিয়ে সদর ও বিশ্বনাথ উপজেলার দুই ইউনিয়নবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত সদর উপজেলার মোগলাগাঁও ইউনিয়ন ও বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজি ইউনিয়নবাসীর মধ্যে এ সংঘর্ষ হয়।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, গত বুধবার লামাকাজি বাজারে মোগলাগাঁও ইউনিয়নের যুগীরগাঁও গ্রামের এক ব্যক্তিকে মারধর করা হয়। ওই ঘটনায় সোমবার সকাল ১০টার দিকে সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদের মধ্যস্থতায় সালিশ বসে। সালিশ চলাকালেই উভয়পক্ষ বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে বিশ্বনাথের লামাকাজি ইউনিয়নের মির্জাগাঁও, মাতাবপুর, লামাকাজি, কাজিরগাঁও, দিঘলীসহ ১২-১৩টি গ্রামের লোকজন সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের লামাকাজি সেতুর এক পাশে অবস্থান নেয়।

অন্যদিকে সিলেট সদর উপজেলার মোগলাগাঁও ইউনিয়নের ধনপুর, আউশা, যুগীরগাঁও, চানপুর, লালারগাঁওসহ ১২-১৩টি গ্রামের লোকজন ওই সেতুর আরেক পাশে অবস্থান নেয়। পরে মাইকিং করে উভয়পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হন।

সিলেট মহানগর পুলিশের জালালাবাদ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আক্তার হোসেন বলেন, পুলিশ ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। সংঘর্ষে আহতদের ওসমানী হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

You Might Also Like