সিরিয়ায় তুরস্কের সামরিক অভিযান সমাপ্ত

সিরিয়ায় সামরিক অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করেছে তুরস্ক।

দেশটি জানিয়েছে, উত্তর সিরিয়ায় ‘ইউফ্রেটিস শিল্ড’ নামে সামরিক অভিযান সফলভাবে শেষ করেছে তারা।

তুরস্কের নিরাপত্তা পরিষদের এক বৈঠকে তুর্কি প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদিরিম সিরিয়ায় সামরিক অভিযান সমাপ্তের ঘোষণা দেন।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী ইলদিরিম নতুন কোনো অভিযানের পরিকল্পনার কথা জানাননি। তা ছাড়া, তুর্কি সেনারা এখনই সিরিয়া ছাড়বে কি না, সে বিষয়টিও পরিষ্কার করেননি তিনি।

তুরস্ক সীমান্তবর্তী সিরীয় অঞ্চল থেকে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) বিতাড়িত করতে এবং স্থানীয় কুর্দি যোদ্ধাদের অগ্রগমন রুখে দিতে গত বছর আগস্ট মাসে ইউফ্রেটিস শিল্ড নামে সামরিক অভিযান শুরু করেছে তুর্কি সরকার।

গত ২৪ আগস্ট তুর্কি সেনাবহর, ট্যাংক ও বিমান সিরিয়ায় প্রবেশ করে। তখন তুরস্ক জানায়, আইএস জঙ্গিদের সীমান্ত অঞ্চলের ১০০ কিলোমিটার দূরে বিতাড়িত করতে এ অভিযান শুরু করল তারা।

অভিযান চলার সময় সিরিয়ায় আইএসের হাতে চলে যাওয়া বেশ কিছু শহর উদ্ধার করে তুর্কি সেনা ও তুরস্ক-সমর্থিত সিরীয় বিদ্রোহীরা। তারা জারাবলুস ও আল-বাব শহর উদ্ধার করে।

ইউফ্রেটিস নদী অতিক্রম করে কুর্দিদের ওয়াইপিজে বাহিনীর সদস্যরা যাতে তুরস্কের দিকে অগ্রসর হতে না পারে, সে বিষয়টি নিশ্চিত করাও ছিল তুর্কি বাহিনীর এ অভিযানের উদ্দেশ্য।

ইরাকের কুর্দি স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের মতো সিরিয়ায়ও সিরীয় কুর্দিদের স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল প্রতিষ্ঠার চেষ্টা নিয়ে উদ্বেগে ছিল তুরস্ক। ফলে তাদের প্রতিরোধ করা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে তুরস্কের জন্য।

স্বাধীনতার জন্য দক্ষিণ-পূর্ব তুরস্কে কয়েক দশক ধরে আন্দোলন করে আসছে তুর্কি কুর্দিদের সংগঠন পিকেকে। তুরস্ক মনে করে, সিরীয় কুর্দিদের ওয়াইপিজে সংগঠনটি পিকেকের শাখা এবং সামরিক কাজে পারদর্শী।

You Might Also Like