সিরিয়ার সৈয়দা জেইনাবে বোমা হামলায় নিহত ৬

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কোর উপশহর সৈয়দা জেইনাবে দুটি বোমা হামলায় নিহত হয়েছে কমপক্ষে ছয়জন।

সৈয়দা জেইনাব শিয়া সম্প্রদায়ের একটি ঐতিহ্যবাহী মজার। মাজারের নামানুসারে এ এলাকার নামকরণ হয়েছে। তা ছাড়া এ শহরের অধিকাংশ বাসিন্দা শিয়া সম্প্রদায়ের।

বিবিসি অনলাইনের এক খবরে শনিবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

দুটি বোমা হামলায় নিহতের পাশাপাশি আহত হয়েছে কমপক্ষে ১৩ জন। তাদের মধ্যে কারো কারো অবস্থা আশঙ্কাজনক।

একজন আত্মঘাতী প্রথম হামলাটি চালায়। পরে একটি গাড়িবোমা হামলা চালানো হয়। এ দুই হামলায় মাহে রমজানে রোজাদারদের মধ্যে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

দামেস্কো থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে সৈয়দা জেইনাব উপশহর। এলাকাটি প্রায়ই সন্ত্রাসীদের হামলার টার্গেটে পরিণত হচ্ছে।

এ বছরের শুরুর দিকে সৈয়দা জেইনাব এলাকায় বড় ধরনের দুটি হামলা হয়। এতে প্রায় দেড় শতাধিক লোক নিহত হয়।

সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা সানা জানিয়েছে, শনিবার প্রথম হামলাটি হয় শহরের প্রবেশ মুখে। একজন আত্মঘাতী বিস্ফোরক বেল্ট পরে এ হামলা চালায়। দ্বিতীয় হামলাটি হয় আল-তিন সড়কে। এটি ছিল গাড়ি বোমা হামলা।

এ দুই হামলার দায় এখনো কেউ স্বীকার করেনি। তবে আগের অধিকাংশ হামলার দায় স্বীকার করে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

অভিযোগ রয়েছে, শিয়া সম্প্রদায়ের লোকেরা সিরিয়ায় প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের পক্ষে যুদ্ধ করছে। বিশেষ করে লেবাননের হিজবুল্লাহ গেরিলাদের বিরুদ্ধে জোরালো অভিযোগ রয়েছে- তারা সিরিয়ায় যুদ্ধ করছে। আইএস জঙ্গিরা কট্টর সুন্নিপন্থিগোষ্ঠী।

You Might Also Like