সিরিয়ার সন্ত্রাসীদের অর্থ দিচ্ছে আমেরিকা: মার্কিন দৈনিকের তথ্য ফাঁস

তুরস্কের মাটিতে সিরিয়ার সরকার বিরোধীদের সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়ার বিষয়ে আমেরিকা ও তুরস্কের মধ্যে সমঝোতা হওয়ার কয়েক সপ্তাহ পর মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট সিরিয়ার সন্ত্রাসীদেরকে আমেরিকার ১০০ কোটি ডলার সাহায্য দেয়ার কথা জানিয়েছে।

এ সংক্রান্ত এক প্রতিবেদনে দৈনিকটি লিখেছে, সিরিয়ার উগ্র সন্ত্রাসীদের প্রতি সৌদি আরব, কাতার, তুরস্ক, জর্দান ও ইসরাইল বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহায়তা করা ছাড়াও মার্কিন সরকারও বছরে ১০০ কোটি ডলার সন্ত্রাসীদেরকে দিয়ে থাকে। দৈনিকটি লিখেছে, সৌদি আরব, কাতার ও তুরস্কের সঙ্গে যৌথ সহযোগিতার আলোকে সিরিয়ার উগ্র সন্ত্রাসীদেরকে এ অর্থ সাহায্য দেয়া হয়েছে। এ ঘটনা ১৯৮০’র দশকে নিকারাগুয়ার মতো দেশগুলোতে অনুগত বাহিনী তৈরিতে মার্কিন অর্থ সহায়তা দেয়ার কথাই স্মরণ করিয়ে দেয়া ।

সিরিয়ার সন্ত্রাসীদেরকে আমেরিকার ১০০ কোটি ডলার সাহায্য দেয়ার খবর এমন সময় প্রকাশিত হল যখন এর আগে এ দেশটি সিরিয়ার সন্ত্রাসীদের মধ্যপন্থী আখ্যায়িত করে তাদেরকে সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়ার পদক্ষেপ নিয়েছে। এ লক্ষ্যে গত মাসে তুরস্ক ও মার্কিন কর্মকর্তারা সিরিয়ার সরকার বিরোধী ২০০০ হাজার লোককে সামরিক প্রশিক্ষণ দেয়ার বিষয়ে চুক্তি সই করেন।

এদিকে সিরিয়া বিষয়ক জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব বান কি মুনের প্রতিনিধি স্টিফেন ডে মিস্ট্রা গতরাতে সিরিয়া বিষয়ে ব্রিটেনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য লন্ডন সফরে যাওয়ার আগে বলেছেন, সিরিয়া সমস্যা সমাধানের একমাত্র উপায় হচ্ছে সংঘাত বন্ধ করে রাজনৈতিক সংলাপে বসা। তিনি বলেন, সিরিয়া সংকটের অবসান এবং বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলীয় আলেপ্পো শহরে যুদ্ধ বন্ধের জন্য তারা চেষ্টা চালাচ্ছেন। এ জন্য তিনি কয়েকবার দামেস্ক সফর করেছেন এবং তুরস্কে অবস্থিত সিরিয়ার বিরোধীদের সঙ্গেও তিনি সাক্ষাৎ করেছেন।

সিরিয়ায় রক্তপাত বন্ধের জন্য জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের বিশেষ প্রতিনিধি’র এ প্রচেষ্টার একই সময়ে সিরিয়ার হোমস প্রদেশের পুলিশ প্রধান বলেছেন, কেন্দ্রীয় শহরে গতকাল সন্ত্রাসীদের বোমা বিস্ফোরণে অন্তত ৩২জন নিহত হয়েছে। সিরিয়ার কুর্দি অধ্যুষিত উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় হাসাকে এলাকার উপজাতি ও কুর্দি নেতারাও এক বিবৃতিতে সেদেশের বিভিন্ন এলাকায় সন্ত্রাসী হামলা এবং সরকার সমর্থক নাগরিকদের গণহারে ফাঁসি দিয়ে হত্যার নিন্দা জানিয়ে তারা প্রেসিডেন্ট আসাদের সরকার ও সেনাবাহিনীর প্রতি সমর্থন ঘোষণা করেন।

সিরিয়ার সেনা কর্মকর্তারাও এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, দেশটির পূর্বাঞ্চলে ও উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের প্রদেশগুলোতে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাসেবী ও সেনাবাহিনীর অভিযানে গত ২৪ ঘণ্টায় অন্তত ১৫০ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। অন্যদিকে সন্ত্রাসীদের একটি ঘনিষ্ঠ সূত্রও জানিয়েছে, তারা তুর্কি সীমান্তের কাছে রাকা প্রদেশের তেল আবিজ শহরের একটি সেতু বিস্ফোরক দিয়ে উড়িয়ে দেয়ায় কুর্দিদের অগ্রযাত্রা থামিয়ে দিতে পেরেছে। তবে এ সেতুটি তুরস্কের সঙ্গে আইএসআইএল’র যোগাযোগের জন্যও অত্যন্ত গুরুত্ব ছিল। সিরিয়ার সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো ২০১১ সাল থেকে তুরস্ক, সৌদি আরব, কাতার, জর্দান ও ইহুদিবাদী ইসরাইলের অর্থ ও অস্ত্র সহযোগিতায় সেদেশের পশ্চিমাঞ্চলের অনেক এলাকা দখল করে আছে।

You Might Also Like