সিঙ্গাপুর সফর সংক্ষেপ করে প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরছেন

নেপালে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত হয়ে অর্ধশতাধিক যাত্রী হতাহতের ঘটনায় সিঙ্গাপুর সফর সংক্ষেপ করে দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সিঙ্গাপুরের প্রধানমন্ত্রী লি সিয়েন লুংয়ের আমন্ত্রণে গত ১১ মার্চ দেশটিতে চারদিনের সফরে যান প্রধানমন্ত্রী। সফর শেষে আগামী ১৪ মার্চ দেশে ফেরার কথা থাকলেও নেপালে বাংলাদেশের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় সফর সংক্ষেপ করে মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরছেন বলে জানা গেছে।

সোমবার বিমান দুর্ঘটনায় হতাহতের খবর পেয়ে সিঙ্গাপুর থেকে এক ভিডিও বার্তায় শোক প্রকাশ করেন এবং নেপালের প্রধানমন্ত্রী খড়গা প্রসাদ শর্মা অলির সঙ্গে ফোনে কথা বলেন তিনি। ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী নেপাল সরকারকে সব রকম সহযোগিতার কথা বলেন।

কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সোমবার দুপুরে ওই দুর্ঘটনায় বিমানটির ৭১ আরোহীর মধ্যে অন্তত ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে; উদ্ধার কাজ এখনো চলছে।

ভিডিও বার্তায় শুরুতেই শোক প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘এই ঘটনায় আমি অত্যন্ত মর্মাহত। দুর্ঘটনার পরপরই নেপালের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সেখানে আমাদের বাংলাদেশের যাত্রী ছিলেন, নেপালের যাত্রী ছিলেন। চায়না ও মালদ্বীপসহ কয়েকটা দেশের যাত্রী ছিলেন।’

তিনি জানান, আহতদের নেপালের পাঁচটি হসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। যেখানে দুর্ঘটনা ঘটেছে, তার কাছেই সেনা ছাউনি। ফলে নেপালের সেনাবাহিনী তাৎক্ষণিকভাবে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে। বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতও সেখানে ছুটে যান।

প্রধানমন্ত্রী

শেখ হাসিনা বলেন, ‘উড়োজাহাজে আগুন লেগে অনেকের দেহ পুড়ে যাওয়ায় শনাক্ত করা কঠিন হয়ে পড়েছে। যারা এখনো জীবিত আছে, তাদের চিকিৎসাসহ যা যা প্রয়োজনীয় সব করতে আমরা প্রস্তুত আছি। নেপালের প্রধানমন্ত্রীকে আমরা জানিয়েছি, তাদের যে কোনো ধরনের সহযোগিতার জন্য বাংলাদেশ প্রস্তুত আছে। সব রকম সহযোগিতা আমরা করব।’

You Might Also Like