সাহাবুদ্দিন হাসপাতালের এমডিসহ ৩ জন কারাগারে

করোনার পরীক্ষা নিয়ে প্রতারণার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় রাজধানীর গুলশানের সাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) তিনজনকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৭ জুলাই) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদ জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন—সাহাবুদ্দিন হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ফয়সাল আল ইসলাম, সহকারী পরিচালক আবুল হাসনাত ও ইনভেন্টরি অফিসার শাহরিজ কবির সাদিক।

এর আগে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গুলশান থানার এসআই মশিউর রহমান তিন আসামিকে আদালতে হাজির করে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন করেন। জামিনের বিরোধিতা করে রাষ্ট্রপক্ষ।

উভয় পক্ষের শুনানি শেষে আদালত জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ২১ জুলাই গুলশান থানায় দায়ের করা বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় আসামিদের পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

গত ১৯ জুলাই দুপুরে সাহাবুদ্দিন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অভিযান চালায় র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানের সময় সহযোগিতা না করায় হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মোহাম্মদ আবুল হাসনাত ও হাসপাতালের ইনভেন্টরি অফিসার শাহরিজ কবির সাদিককে আটক করে র‌্যাব। ২০ জুলাই রাতে র‌্যাব বাদী হয়ে হাসপাতালের এমডিসহ তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা করে। ২০ জুলাই রাতেই রাজধানীর একটি হোটেল থেকে ফয়সাল আল ইসলামকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

You Might Also Like