সাতক্ষীরার আধিপাত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ২

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার চিংড়াখালি ভূমিহীন জনপদে জমি দখলকে কেন্দ্রকরে সরকার দলীয় ভূমিহীন ও প্রকৃত ভূমিহীনদের মাঝে সংঘর্ষে দুই ভূমিহীন নেতা নিহত হয়েছেন।

সোমবার সকাল সোয়া ১০টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন ভূমিহীন নেতা আশরাফ মীর ও ইসহাক আলী।

কালিগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শহিদুল্লাহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, এর আগে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার চিংড়াখালি ভূমিহীন জনপদে জমি দখল করার জন্য হামলা চালায় সরকার দলীয় ভূমিহীন সন্ত্রাসীরা। এ সময় তাদের হামলায় অন্তত ২০ জন আহত হয়।

স্থানীয়রা জানান, উচ্ছেদ করে জমি দখলের লক্ষ্যে ভোরে হঠাৎ করেই চিংড়াখালি ভূমিহীন জনপদে হামলায় চালায় দস্যু আশরাফ মীরের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জন সশস্ত্র সন্ত্রাসী। এ সময় আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য কমপক্ষে ৪০টি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় সন্ত্রাসীরা। এছাড়া গুলিবর্ষণের ঘটনাও ঘটে। এ সময় বোমার আওয়াজে গোটা এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তাদের হামলায় ভূমিহীন ফিরোজ, গফুর ও মনিসহ ওই জনপদের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। তাদের কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছেন।

এ সময় ভূমিহীনরা পাইপ গান ও তিনটি বোমাসহ দস্যু আশরাফ মীর, তার সহযোগী ইসহাক ও আবু বকরকে ধরে ফেলে গণপিটুনি দেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তাদের আটক এবং একটি পাইপগান ও তিনটি বোমা জব্দ করে। পরে তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ পাহারায় চিকিৎসা দেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সোয়া ১০টার দিকে তাদের মধ্যে আশরাফ ও ইসহাকের মৃত্যু হয়।

প্রসঙ্গত, চিংড়াখালির ভূমিহীনরা ১৩ বছর ধরে সেখানকার খাসজমিতে বসবাস করে আসছেন।

You Might Also Like