সরাইলে ডাকাতের হামলায় কলেজছাত্রী নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বসতবাড়িতে ডাকাতের হামলায় এক কলেজ ছাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় একই পরিবারের অপর তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

গুরুতর আহত তিনজনকে সরাইল উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার ভোরে উপজেলার নয়াগাও ইউনিয়নের ইসলামাবাদ গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। নিহত কলেজ ছাত্রীর রতœা ( ১৯)। তিনি এলাকার উসমান মিয়ার মেয়ে এবং বিজয়নগরের ইসলামপুর কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ভোরে এলাকার উসমান মিয়ার বাড়িতে একদল সংঘবদ্ধ ডাকাতদল হানা দেয়। এসময় ডাকাতরা বাড়ির গ্রিল কেটে ভিতরে প্রবেশ করে এবং সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ফেলে।

ডাকাতরা বাড়িতে থাকা মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করতে থাকে। বাড়ির লোকজন বাঁধা দিতে চাইলে ডাকাতরা সবাইকে এলোপাথারি কোপাতে থাকে। এসময় রতœা পাশের রুমে ঘুমিয়ে ছিল।

পরে রতœা ঘুম থেকে উঠে এসে চেচামেচি শুরু করলে ডাকাতরা তার মাথায়, বুকে ও পেটে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে জখম করে। এবং ডাকাতরা কয়েক লাখ টাকার মাল লুট করে নিয়ে পালিয়ে যায়।

গুরুতর আহতাবস্থায় রতœা ও পরিবারের অপর তিন সদস্যকে সরাইল উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সকালে উন্নত চিকিৎসার জন্য রতœাকে ঢাকায় নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

আহত রতœার ভাই ইয়াছিন জানান, ঘরের গ্রিল কেটে ডাকাতরা ভিতরে ঢুকে বাড়ির সবাইকে এলোপাথারি কোপাতে থাকেন এবং মূল্যবান জিনিসপত্র লুট করতে থাকে। আমার বোন ঘুম থেকে উঠে আসার পর তাকেও এলাপাথারি কুপিয়ে আহত করে ডাকাতরা। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

এব্যপারে সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) আব্দুল হক বলেন, ডাকাতের হামলায় একজন নিহত হওয়ার খবর পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।’

You Might Also Like