সরকার-প্রশাসনে সমন্বয়হীনতা দেখছেন মওদুদ

বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য ও পুলিশ প্রশাসনের পদক্ষেপে বৈপরীত্য দেখেছেন দলটির নেতা ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। সরকারের ভেতরে সমন্বয়হীনতার কারণেই এমনটি হচ্ছে বলে মনে করছেন তিনি।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে এক প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

বিএনপির কালো পতাকা প্রদর্শনের কর্মসূচিতে পুলিশি বাধার চিত্র তুলে ধরে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘আজকে আমাদের শান্তিপূর্ণ একটা অনুষ্ঠান ছিল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, শান্তিপূর্ণ অনুষ্ঠানে সরকার বাধা দেবে না। কিন্তু বাধা দেওয়া হয়েছে। হয় উনার নেতৃত্বে, না হয় উনার কথার কোনো মূল্য নেই।’

‘উনি সত্য কথা বলেছেন। কিন্তু উনার কথা কার্যকর করার জন্য যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রয়েছে তারা তা করেন নাই। উনি এক কথা বললেন আর আইজি সাহেব যারা পুলিশ চালান তারা বললেন আরেক কথা। তাহলে মনে হয় সরকারের মধ্যে বিরাট একটি সমন্বয়হীনতা আছে,’ বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য।

তিনি বলেন, ‘আমরা কোনো ধরনের সংঘর্ষে যেতে চাই না। আমাদের নেত্রী বলে গেছেন, কোনো হটকারিতা চলবে না। সেজন্য আমাদের সমাবেশ করতে না দেওয়ায় কালো পতাকা প্রদর্শন কর্মসূচি ছিল। আমরা গাড়ি বা রাস্তা ব্লক করছি না, কোনো রকমের অনিয়ম করছি না, আমরা রাস্তায় দাঁড়িয়ে কালো পতাকা প্রদর্শন করছি। অথচ এরকম একটি শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতেও বাধা দেওয়া হলো।’

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে এই প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে ‘বাংলাদেশ ইয়ুথ ফোরাম’ নামের একটি সংগঠন।

মওদুদ আহমদ বলেন, ‘পুলিশ বাহিনী এখন সরকারের কাছে, আওয়ামী লীগের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সেজন্য তারা তাদের মাধ্যমে এই কাজগুলো করাচ্ছে। অথচ পুলিশের দায়িত্ব-কর্তব্য হলো দেশের আইনশৃঙ্খলা দেখা, নিয়ন্ত্রণ রাখা। সেদিকে তারা চরম ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।’

শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের জন্য সরকারকে বাধ্য করা হবে জানিয়ে নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ও ধৈর্য ধারণের আহ্বান জানান মওদুদ।

সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের রহমাতুল্লাহ, আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মুহম্মদ সাইদুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল হক চৌধুরী প্রমুখ।

You Might Also Like