সজীব হত্যার ২ আসামি ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় চাঞ্চল্যকর স্কুলছাত্র সজীব অপহরণ ও হত্যা মামলার অন্যতম দুই আসামি শাকিল ও সবুজ র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন।

বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনার শান্তিপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে সজীব অপহরণ ও হত্যা মামলার তিন আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত হলেন।

গত রাতে নিহত ব্যক্তিরা হলেন দামুড়হুদা শহরের ব্রিজ মোড়পাড়ার আবদুল কাদেরের ছেলে শাকিল (২২) ও চুয়াডাঙ্গা শহরের সিঅ্যান্ডবি পাড়ার মৃত হামিদুলের ছেলে সবুজ (২১)।

ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, একটি রিভলবার, দুটি হাঁসুয়া ও চারটি গুলি উদ্ধার করেছে র‌্যাব। বন্দুকযুদ্ধে শাহিন ও শামীম নামে র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন।

ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬-এর পরিচালক মেজর মনির বলেন, বুধবার মধ্যরাতে র‌্যাবের একটি দল চুয়াডাঙ্গায় টহলে বের হয়। রাত ৩টার দিকে র‌্যাবের ওই দলটি দামুড়হুদার দর্শনার শান্তিপাড়া এলাকায় পৌঁছালে দুর্বৃত্তরা র‌্যাবের ওপর গুলি চালায়। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালালে দুটি মোটরসাইকেলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে সবুজ ও শাকিলকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে দামুড়হুদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

প্রসঙ্গত, চুয়াডাঙ্গা ভি জে স্কুলের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র মাহফুজ আলম সজীবকে গত ২৯ জুলাই দামুড়হুদা উপজেলা বৃক্ষমেলা থেকে অপহরণ করে দুর্বৃত্তরা। পরে তার পরিবারের কাছে ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয় ।

এ ঘটনার ৩২ দিন পর ৩১ আগস্ট চুয়াডাঙ্গা শহরের সিঅ্যান্ডবি পাড়ার একটি বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে সজীবের গলিত লাশ উদ্ধার করে র‌্যাব।

গত ১৬ সেপ্টেম্বর রাতে আলোচিত এ অপহরণ ও হত্যা মামলার প্রধান অভিযুক্ত স্থানীয় ইউপি সদস্য রাকিবুল র‌্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন।

You Might Also Like