শেরপুরে করোনায় পিডিবির সাবেক সিবিএ সভাপতির মৃত্যু

শেরপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে পিডিবির সাবেক সিবিএ (কালেকটিভ বার্গেনিং এজেন্ট) সভাপতি সানোয়ার হোসেনের (৫৭) মৃত্যু হয়েছে।

সোমবার রাত সোয়া ১২টার দিকে জেলা সদর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়।

মৃত সানোয়ার হোসেন ঢাকা বিদ্যুৎ ভবনে সিনিয়র সহকারী হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

মঙ্গলবার সকালে জেলার সিভিল সার্জন একেএম আনওয়ারুর রউফ এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সোমবার রাত ১২টার দিকে সানোয়ার হোসেনের তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে সেখানেই তার মৃত্যু ঘটে।

এদিকে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় করোনার উপসর্গ নিয়ে মফিজুল ইসলাম (৩২) নামে একজন মারা গেছেন। নালিতাবাড়ী উপজেলার মরিচপুরান ইউনিয়নের গোজাকুড়া গ্রামের নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়।

মৃত মফিজুল ঢাকায় শ্রমিকের কাজ করতেন। কয়েক দিন আগে তিনি জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে নিজ বাড়িতে ফেরেন। উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হলেও সোমবার রাতে মরদেহ দাফন করা হয়। মৃত ওই শ্রমিকের নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি।

সিভিল সার্জন জানান, তিনি অসুস্থ হয়ে বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা নিয়েছেন। মরদেহ দাফন করে ফেলার কারণে নমুনা সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। তবে তিনি তার পরিবারের সদস্যসহ যাদের সংস্পর্শে এসেছিলেন তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে।

এদিকে শেরপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ছয়জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সোমবার রাতে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ৫৩টি নমুনা পরীক্ষা শেষে ওই ছয়জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।

এ নিয়ে জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৮৩ জনে দাঁড়াল বলে মঙ্গলবার জেলার সিভিল সার্জন একেএম আনওয়ারুর রউফ জানান।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে জেলার শেরপুর সদর উপজেলায় তিনজন, নালিতাবাড়ী উপজেলায় দুজন ও শ্রীবরদী উপজেলায় একজন রয়েছেন।

সিভিল সার্জন বলেন, জেলায় এ পর্যন্ত ২ হাজার ৯৩৫ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। যার মধ্যে ২ হাজার ৭৫৫ জনের নমুনা পরীক্ষা শেষে মোট ১৮৩ জনের আক্রান্তের বিষয়ে জানা গেছে।

জেলায় আক্রান্তদের মধ্যে ২৪ জন পুলিশ সদস্য এবং আট চিকিৎসক, দুই নার্স, অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী ২৯ জনসহ মোট ৩৯ জন রয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮৪ জন। মারা গেছেন তিনজন।

You Might Also Like