রাস্তায় ভিক্ষা করছেন ম্যারাডোনার সতীর্থ

আর্জেন্টাইন ফুটবল কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনার এক সময়কার সতীর্থ পিয়েত্রো পুজনের অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটছে রাস্তায়। মাথা গোঁজার ঠাঁই নেই কোথাও। তিনি এখন ছিন্নমূল। কেউ খাবার দিলে খান, না দিলে অনাহারেই ফুটপাতে ঘুমিয়ে থাকেন। ভিক্ষা করেই জীবন চলছে এই সাবেক ফুটবল তারকার।

সম্প্রতি ম্যারাডোনার এই সতীর্থের করুন জীবন যাপনের চিত্র ফুটে উঠেছে ইতালির লা গ্যাজেত্তা দেল্লো স্পোর্ট পত্রিকায়।

এমন খবরেরই হতবাক ফুটবলবিশ্ব। আশির দশকের শেষ দিকে ইতালির ক্লাব ফুটবলে ন্যাপোলির হয়ে দিয়েগো ম্যারাডোনার সঙ্গে মাঠ কাঁপাতেন পিয়েত্রো পুজন। ১৯৮৭ সালে ম্যারাডোনার নেতৃত্বে ন্যাপোলি চ্যাম্পিয়ন হয়। সে সময় দলের একজন নামকরা মিডফিল্ডার ছিলেন পিয়েত্রো পুজন।

আর সেই ফুটবলারেরই এমন দৈন্যদশায় যারপরনাই হতভম্ব ফুটবলপ্রেমীরা।

দেল্লো স্পোর্ট জানিয়েছে, ইতালির নেপলস থেকে ১৪ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে আচেরার রাস্তায় মানুষের কাছ থেকে খাবার চাইতে দেখা গেছে তাকে।

ক্রীড়া দৈনিকটি জানিয়েছে, এক সময় মাদকাসক্ত হয়ে ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়ে গেলে ফুটবল থেকে হারিয়ে যান পুজন। অর্থকড়ি সব খরচ করে নেশায় বুঁদ হয়ে থাকতেন। এরপরই ফুটবল থেকে একেবারেই বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন।

এদিকে দেল্লোতে এই সংবাদ প্রকাশের পর পুজনের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে আচেরা সিটি কর্পোরেশন।

শহরের মেয়র রাফায়েল লেতিয়েরি লা গ্যাজেট্টা দেল্লো স্পোর্টকে জানিয়েছেন, ‘করোনাকালে জরুরি সেবা দেয়া হয়েছে পুজনকে।

তার আগে সবচেয়ে জরুরি বিষয় তার মাদকসক্তি থেকে মুক্তি। এজন্য ম্যারাডোনাসহ পুরনো বন্ধুদের সহায়তা চাইছেন মেয়র।

You Might Also Like