রাসায়নিক অস্ত্রের ব্যবহার প্রমাণিত হলে সিরিয়ায় হামলা করব: ফ্রান্স

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন হুমকি দিয়ে বলেছেন, সিরিয়া সরকার দেশটিতে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে বলে প্রমাণিত হলে সেদেশের বিরুদ্ধে সামরিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মঙ্গলবার এক বক্তৃতায় এ হুঁশিয়ারি দেয়ার পাশাপাশি ম্যাকরন একথাও বলেছেন, প্যারিস এখনক পর্যন্ত সিরিয়া সরকারের পক্ষ থেকে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের কোনো প্রমাণ পায়নি।

এর আগে ফ্রান্সের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পারলি শুক্রবার এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, দামেস্ক সিরিয়ার জনগণের ওপর রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করেছে এমন তথ্য নিশ্চিতকারী কোনো দলিল প্যারিসের হাতে আসেনি।
আমেরিকা ও তার মিত্ররা সিরিয়ার বিভিন্ন রাসায়নিক হামলার জন্য দামেস্ক সরকারকে দায়ী করার চেষ্টা করছে। বিশেষ করে ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে সেদেশের ইদলিব প্রদেশের খান শেইখুন এলাকায় চালানো রাসায়নিক হামলার জন্য সিরিয়া সরকারকে দায়ী করার জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে ওয়াশিংটন। ওই হামলায় অন্তত ১০০ মানুষ নিহত হয়।

সিরিয়া সরকার শুরু থেকে এ ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করে এসেছে।

এদিকে বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া খবরে জানা গেছে, উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠীগুলো সিরিয়া ও ইরাকে বহুবার রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগ করেছে। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, মার্কিন মদদপুষ্ট সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে সিরিয়া সরকারের উল্লেখযোগ্য বিজয় থেকে বিশ্ব জনমতকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য বাশার আল-আসাদ সরকারের বিরুদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগের অভিযোগ আনছে ওয়াশিংটন ও তার মিত্ররা। রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্প্রতি বলেছে, উগ্র জঙ্গিদেরকে রক্ষা করার লক্ষ্যে দামেস্কের বিরুদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র প্রয়োগের অভিযোগ আনা হচ্ছে।

You Might Also Like