রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সাবেক প্রেসিডেন্ট এপিজে আবদুল কালামের দাফন সম্পন্ন

ভারতের সাবেক প্রেসিডেন্ট ভারতরত্ন এপিজে আবদুল কালামকে আজ পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা হয়েছে। তামিলনাড়ুর রামেশ্বরমে এ সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কংগ্রেসের ভাইস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী, কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া, কেরলের মুখ্যমন্ত্রী ওমেন চান্ডি, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মনোহর পাররিকার, বেঙ্কইয়া নাইডু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। আজ সাবেক প্রেসিডেন্টকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর পর্ব কার্যত জনসমুদ্রে পরিণত হয়

গতকাল বুধবার সাবেক প্রেসিডেন্টের মরদেহ বিশেষ বিমানে করে দিল্লি থেকে কালামের জন্মস্থান রামেশ্বরমে নিয়ে আসা হয়।

আজ (বৃহস্পতিবার) সকাল সাড়ে নয়টার সময় তিন বাহিনীর জওয়ানরা কালামের মরদেহ পৈতৃক বাসভাবন থেকে পার্শ্ববর্তী মসজিদে নিয়ে যায়। সেখানে মসজিদের ইমাম জানাজা নামাজ পড়ান। সেনাবাহিনীর জওয়ানরা শূন্যে গুলি ছুঁড়ে কালামকে সালাম দেন। তাকে দাফন করার পর বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

আজ তামিলনাড়ুতে একদিনের জন্য সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়। এজন্য স্কুল, কলেজ, ব্যাংক এবং অন্যান্য সরকারি প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। কালামকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য রাজ্যের প্রায় ত্রিশ হাজার সোনার দোকানের পাশাপাশি শহরের সমস্ত প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ রাখা হয়। আজ মৎস্যজীবিরাও সমুদ্রে মাছ ধরা বন্ধ রেখে দেন।

বুধবার এক বিবৃতিতে প্রকাশ, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা শোক প্রকাশ করে বলেছেন, ‘সাবেক প্রেসিডেন্ট এপিজে আব্দুল কালামের প্রয়াণে আমেরিকার মানুষদের হয়ে ভারতীয়দের প্রতি আমার গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। তিনি ছিলেন, একাধারে বিজ্ঞানী ও দেশনেতা। খুব সাধারণ অবস্থা থেকে শুরু করে ভারতের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের অন্যতম হয়ে উঠে দেশে বিদেশে অতুল্য সম্মানের অধিকারী হয়েছিলেন তিনি।’

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছেন, ‘ভারতের সামাজিক, অর্থনৈতিক, প্রযুক্তিগত অগ্রগতিতে তার অবদানের কথা যতই বলা হোক না কেন তা কম হবে।’

প্রসঙ্গত, গত ২৭ জুলাই শিলংয়ে ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্টের-এর একটি অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দিতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান ৮৩ বছর বয়সী সাবেক প্রেসিডেন্ট এপিজে আবদুল কালাম।

You Might Also Like