রাতে প্রেমিকের সঙ্গে, লজ্জায় আত্মহত্যা

আত্মহত্যা রাতে প্রেমিকের সঙ্গে, লজ্জায় আত্মহত্যা রাতে প্রেমিকের সঙ্গে, লজ্জায় আত্মহত্যা 1নোয়াখালী: প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করাই কাল হলো নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ খানপুর গ্রামের এক কিশোরীর। রাতে প্রেমিকসহ স্থানীয়দের হাতে আটক হওয়ার পর লোক লজ্জার ভয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হলো তাকে।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে পুলিশ নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে। নিহত রোজিনা আক্তার (১৩) উপজেলার শরীফপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ খানপুর গ্রামের করিম দারোগার বাড়ির আবুল হাশেমের মেয়ে। সে নরোত্তমপুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্র জানায়, কিশোরী রোজিনার নরোত্তমপুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার সময় গয়েছপুর গ্রামের আবুল কালাম প্রকাশ কালার ছেলে রিপনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয়।

তাদের এ সম্পর্ক নিয়ে গত কয়েক মাস আগে একবার এলাকায় সালিশি বৈঠক হয়।

পরিবার সূত্র আরও জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যায় রোজিনাকে বাড়িতে একা রেখে তার বড় ভাই অসুস্থ মাকে নিয়ে জেলা শহর মাইজদীর একটি প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করেন।

রাতে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে প্রেমিক রিপন তাদের বাড়িতে রোজিনার সঙ্গে দেখা করতে আসেন ।

পরে রাত সাড়ে ১২টার দিকে রোজিনাদের ঘর থেকে প্রেমিক যুগলের কথা শুনে রোজিনার চাচাতো ভাই বিল্লাল রোজিনাকে দরজা খুলতে বলে। দরজা খোলার পর বিল্লাল ও বাড়ির লোকজন ঘরে মধ্যে লুকিয়ে থাকা প্রেমিক রিপনকে আটক করে। খবর পেয়ে রাত দেড়টার দিকে রিপনের এলাকার লোকজন ওই বাড়িতে গিয়ে লোকজনকে হুমকি দিয়ে রিপনকে ছিনিয়ে নিয়ে আসে।

এঘটনায় লোক লজ্জার ভয়ে শনিবার ভোরের কোনো একসময় তার নিজের কক্ষে গলা ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে রোজিনা আক্তার।

পরে খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

বেগমগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলামেইলকে জানান, খবর পেয়ে নিহতের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

You Might Also Like