রাজধানীতে জামায়াত-শিবিরের বিক্ষোভ, সংঘর্ষে আহত ১৫

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা নিজামীকে মৃত্যদণ্ড দেয়ার প্রতিবাদে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা।

রাজধানী ঢাকার একাধিক স্থানে বিক্ষোভের ঘটনায় পুলিশ ও ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতাকর্মীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ হয়। এতে আহত হয়েছে অন্তত ১৫ জন। আটক করা হয়েছে তিনজনকে।

বুধবার নিজামীর রায় ঘোষণার পর বাড্ডায় জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী তাৎক্ষণিক বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি রহমতুল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে শুরু হয়ে স্বাধীনতা চত্তরে এসে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

সমাবেশের এক পর্যায়ে পুলিশের নেতৃত্বে ছাত্রলীগ ও যুবলীগ নেতাকর্মীরা হামলা চালায়। এতে দুপক্ষের মধ্য সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড় জামায়াত-শিবিরের ১৫ নেতাকর্মী আহত হন। আহতদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা গুরুতর। আহত অবস্থায় রাইহান ও রুবেলসহ তিনজনকে আটক করে পুলিশ।

রায়ের প্রতিবাদে রাজধানীর মিরপুর এলাকায়ও বিক্ষোভ মিছিল বের করে জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী। মিছিলটি মিরপুর ১০ নং বিআরটিএ থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

মাওলানা নিজামীকে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার জামায়াতে ইসলামী পল্টন-মতিঝল জোনের উদ্যোগে নগরীর রামপুরায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি টিভি সেন্টারের সামনে থেকে শুরু হয়ে নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

এছাড়া নিজামীর রায়ের প্রতিবাদে জামায়াতে ইসলামী যাত্রাবাড়ী-লালবাগ জোনের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিলটি জুরাইন রেল গেইট থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ধোলাইপাড় এসে সমাবেশে মিলিত হয়।

সমাবেশের এক পর্যায়ে পুলিশ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের ধাওয়া দেয়। এ সময় উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

You Might Also Like