যৌনপল্লী থেকে তরুণী উদ্ধার, গ্রেফতার ২

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া যৌনপল্লী থেকে রোববার রাতে এক তরুণীকে (২০) উদ্ধার করেছে পুলিশ। একই সঙ্গে ওই তরুণীকে যৌনপল্লীতে বিক্রির অভিযোগে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- গোপালগঞ্জের মকসুদপুর উপজেলার কানুরিয়া গ্রামের প্রয়াত আইয়ুব শেখের ছেলে বকুল শেখ (২৫) ও ফরিদপুর জেলার নগরকান্দা উপজেলার নিকর হাটি গ্রামের আইয়ুব আলী মুন্সীর ছেলে আবুল বাসার মুন্সী (২৬)।

উদ্ধার হওয়া তরুণী জানান, তিনি ঢাকার মিরপুর দোয়ারীপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থেকে একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন। তার বাসার সামনে কিছুদিন ধরে বকুল আম বিক্রি করছিল। এর সূত্র ধরে বকুলের সঙ্গে তার সখ্যতা গড়ে ওঠে।

তিনি জানান, রোববার বকুল তার বাবার ফোনে ফোন করে তাকে একটি মোবাইল সেট কিনে দেওয়ার কথা বলে মিরপুরে পূরবী সিনেমা হলের কাছে যেতে বলে। পরে সেখানে গেলে বকুল কম দামে ভালো মোবাইল কিনে দেওয়ার কথা বলে তাকে প্রথমে সাভার ও পরে পাটুরিয়া হয়ে দৌলতদিয়া ঘাটে নিয়ে যায় এবং দালালের মাধ্যমে যৌনপল্লীর সুমি বাড়িওয়ালীর কাছে বিক্রি করে দেয়।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার এএসআই সাগর জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে অভিযান চালিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার ও নারী পাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি জানান, পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাড়িওয়ালী সুমী কৌশলে পালিয়ে যায়। উদ্ধার হওয়া তরুণী নিজে বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে মানবপাচার আইনে মামলা করেছে।

You Might Also Like